অধিক মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করায় ৪ দোকানীকে জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার
অধিক মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করায় সুনামগঞ্জ শহরের চার দোকানীকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার বিকালে শহরের জেলরোড, জগন্নাথবাড়ী, স্টেশনরোড এলাকায় অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করায় এই জরিমানা আদায় করা হয়। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আকলিমা আক্তার’র নেতৃত্বে এই অভিযান হয়।
ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করার সময় দেখতে পান জেলরোড, জগন্নাথবাড়ী ও স্টেশন রোড এলাকার ব্যবসায় বিজয় স্টোর, মেসার্স রুকেয়া স্টোর, মেসার্স অনিল স্টোর, মেসার্স সুমন মিয়া ট্রেডার্স প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১৯০ থেকে ২০০ টাকা বিক্রি করছেন। এসময় জেলরোডের বিজয় স্টোর ও মেসার্স রোকেয়া স্টোরকে ২০০০ টাকা করে জরিমানা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আকলিমা আক্তার। এছাড়া জগন্নাথবাড়ী অনিল স্টোর ও মেসার্স সুমন মিয়াকে ১০০০ টাকা করে জরিমানা করা হয়।
ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আকলিমা আক্তার সকল দোকানীকে জানিয়ে দেন, প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৫০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি করতে হবে। যারা পারবেন না, বিক্রি করবেন না।
এদিকে, সকালে সুনামগঞ্জ শহরের বিভিন্ন দোকানে গিয়ে দেখা যায় বাজারে পেঁয়াজের দাম একেক দোকানে একেক রকম। ১৮৬ থেকে ২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ।
জেল রোডের হান্নান চৌধুরী স্টোরের খুচরা বিক্রেতা মাছুম আলম বলেন, পেঁয়াজ পাওয়া যায় না। পাইকারী ২০৩ টাকা করে প্রতি কেজি পেঁয়াজ কিনে এনেছি, কিছু লাভ করে সেটা বিক্রি করছি।
জগন্নাথবাড়ী এলাকার পাইকারী পেঁয়াজ ব্যবসায়ী মেসার্স পারভেজ ট্রেডার্সের মালিক দুধ মিয়া বলেন, অতিরিক্ত দামের কারণে ১ সপ্তাহ ধরে পেঁয়াজ আনি না। সোমবার সকালে বিশ্বম্ভরপুরের বাঘবেড় বাজার থেকে ৪ বস্তা পেঁয়াজ এনেছি। ১৭০ টাকা করে প্রতি কেজি কেনা পড়েছে।
জগন্নাথবাড়ী এলাকার পাইকারী ব্যবসায়ী অনিল স্টোরের মালিক ভীম রায় বলেন, সিলেট থেকে ১৬০ টাকা কেজি পেঁয়াজ আনতে হয়। এজন্য প্রতি কেজি পেঁয়াজ পাইকারী ১৬৫ টাকা করে বিক্রি করছি।
হাসননগরের বাসিন্দা মো. ওয়ালীদ হাসান বলেন, সকালে পেঁয়াজ কিনতে বের হয়েছিলাম। দুই দোকান থেকে ফেরত এসেছি। পেঁয়াজ নেই। পরে অন্য একটি দোকানে গিয়ে পেঁয়াজ পাই।
সুনামগঞ্জের বাজার মনিটরিং কর্মকর্তা আব্দুল খালেক বলেন, আমরা সোমবার বাজার মনিটরিংয়ে বেরিয়েছি। আরও বের হবো, যারা অধিক মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রি করবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।