অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মচারী কল্যাণ সমিতির শিক্ষাবৃত্তি ও অনুদান বিতরণ

স্টাফ রিপোর্টার
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেছেন,‘আমাদের সন্তানেরা লেখাপড়ায় অনেকটা পিছিয়ে পড়েছে। আগামী প্রজন্মের মধ্যে মূল্যবোধ জাগ্রত করতে হবে সকলের। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু মহান মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের রক্তের বিনিময়ে এ দেশ স্বাধীন হয়েছে। তাই প্রতিটি এলাকায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পরিচিতি ও মুক্তিযুদ্ধের ঘটনাবলীর বর্ণনা শুনাতে হবে আগামী প্রজন্মকে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস শুনতে হবে এবং শুনাতে হবে । বর্তমান সরকার দেশের মানুষকে সাবলম্বী করে তোলতে বিভিন্ন সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছেন। দেশকে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। এটা আমাদের সকলের উন্নয়ন।’
শনিবার বিকাল ৪টায় শহরের কাজীর পয়েন্ট এলাকায় বাংলাদেশ অবসরপ্রাপ্ত সরকারী কর্মচারী কল্যাণ সমিতি জেলা শাখার উদ্যোগে শিক্ষা বৃত্তি, এককালীন অনুদান, কন্যার বিবাহ ও চিকিৎসা সহায়তা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি ডা: সৈয়দ মনোওয়ার আলী। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মো. খুরশেদ আহমদ। কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন সহ-কোষাধ্যক্ষ মো. হাবিবুর রহমান ও গীতা পাঠ করেন অনকুল চন্দ্র মৈত্র।
আলোচনা সভা শেষে কলেজে পড়–য়া ১২ জনকে ৫ হাজার টাকা করে এবং ২ জনকে ৪ হাজার টাকা করে শিক্ষাবৃত্তি, ৫৪ জনকে ২ হাজার টাকা করে অনুদান, ৫ হাজার টাকা করে ৭ জনকে বিবাহ ও চিকিৎসা সহায়তা প্রদান করা হয়। এছাড়া অনুষ্ঠানে ২ জনকে রোটারী ক্লাব অব জালালাবাদ সংগঠন সিলেটের পক্ষে ২টি সেলাই মেশিন প্রদান করেন অতিথিরা।