অশুভ শক্তি মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ হতে হবে- মিসবাহ

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জ ৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বলেন, বেঁচে থাকলে আজ বরুণ রায় শতবর্ষী হতেন। তাঁর মতো মানুষ শতবর্ষে একজনই আসেন। আমরা বরুণ রায় কে দেখেছি, ¯েœহধন্য হয়েছি, এটা আমাদের পরম পাওয়া। আমরা যখন রাজনীতিতে আসি তখন তিনি রাজনীতির মহিরুহ। তখন আমরা সাহস করে তাঁর কাছে যেতে পারিনি। কিন্তু পথে যাওয়া আসার সময় তিনি বলতেন, ‘বাসায় আসিস। তোরা কি ভাবনা চিন্তা করিস জানতে চাই।’ বাসায় গেলে তিনি আমাদের সাথে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করতেন।
তিনি বলেন, অশুভ শক্তি মোকাবেলা করতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। বরুণ রায়কে সবাই সম্মান করতো। তিনি সুনামগঞ্জকে আলোকিত করেছেন। সারাটা জীবন মানুষের জন্য কাজ করেছেন। জাতির জনকের নেতৃত্বে মুক্তিসংগ্রাম করেছেন। তাঁর স্বপ্ন ছিলো বৈষম্য থাকবে না। কিন্তু এখন মানুষে মানুষে বৈষম্য তীব্র হচ্ছে। সেই বৈষম্য দূর করে মানুষে মানুষে সাম্য প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আমি কথা দিচ্ছি এই শহরে বরুণ রায় মঞ্চ প্রতিষ্ঠা করবো।

কমরেড বরুণ রায়ের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ৩ দিনব্যাপী আয়োজনের শেষ দিন বৃহস্পতিবার আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, বরুণ রায় শহরের সবার অভিভাবক ছিলেন। স্থানীয় ইস্যুতে যখন সমস্যা হয়েছে তিনি আমাদের মাথার উপর ছায়া হয়ে ছিলেন্। ভারতের বাবরী মসজিদ নিয়ে যখন সুনামগঞ্জে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হয় তখন তিনি বললেন, এই শহরে কিছু হবে। কিন্তু এখানে সাম্প্রদায়িকতার আচড় দেয়া হয়েছে। অনেকেই আক্রান্ত হয়েছে। সেটির পেছনেও ছিল নির্বাচন ও রাজনীতি ছিল। সুনামগঞ্জকে আমরা ভিলেজ টাইন বলি, এখানে এই ঘটনা ঘটার কারণ ছিল না। সেদিন তিনি খুব কষ্ট পেয়েছিলেন।