অসুস্থ্য সীমান্ত সরকার করোনায় আক্রান্ত নয়

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জে সোমবার কাশি ও শ্বাসকষ্টে মৃত্যুবরণকারী ৫৫ বছর বয়সী নারী সবিতা রানী সরকারের স্বামী সীমান্ত বিজয় সরকার করোনায় আক্রান্ত নয়। পরীক্ষা-নীরিক্ষা শেষে বুধবার রাত সাড়ে ৮ টায় সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. শামছুদ্দিন এই তথ্য জানান।
জ¦র, সর্দি, কাশি এবং উচ্চ রক্তচাপের মূমুর্ষ রোগী সুনামগঞ্জ শহরের পূর্ব নতুনপাড়ার বাসিন্দা সবিতা রানী সরকারকে অসুস্থ্য অবস্থায় সোমবার ভোর সাড়ে ৫ টায় সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নিয়ে আসেন স্বজনরা। কর্তব্যরত ডাক্তার রোগীকে পরীক্ষা করে মৃত ঘোষণা করেন। পরে স্বজনরা তাঁর মরদেহ নিয়ে বাসায় যান এবং সঙ্গে সঙ্গে তাঁর শেষকৃত্য হয়। এই নারী’র মৃত্যুকে নিয়ে ওই মহিলাসহ পুরো শহরেই আতঙ্ক ছড়ায়। অনেকেই সন্দেহ করেন মহিলা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।
পরে সিভিল সার্জন ডা. শামছুদ্দিন সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালের সিনিয়র কলসালটেন্ট (মেডিসিন) নেতৃত্বে ডেপুটি সিভিল সার্জন, মেডিকেল অফিসার, স্বাস্থ্য সহকারীকে সদস্য করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। কিন্তু রোগীর শবদাহ সম্পন্ন হওয়ায় পুন:মূল্যায়ন সম্ভব হয়নি।
তদন্ত কমিটির কাছে মৃত মহিলার স্বামী সীমান্ত বিজয় সরকার জানান, তার স্ত্রী দীর্ঘদিন যাবৎ উচ্চ রক্তচাপে ভুগছিলেন এবং অনিয়মিত ওষুধ সেবন করতেন। এক সপ্তাহ যাবত জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও কাশিতে ভুগছিলেন তিনি।
তদন্ত কমিটির সদস্যরা জানতে পারেন, স্বামী সীমান্ত বিজয় সরকারও গত কয়েকদিন যাবত জ্বর ও কাশিতে ভুগছেন। তিনিও ভীত হয়ে সিলেটে গিয়ে চিকিৎসা, আইসোলেশন ও কোভিড ১৯ এর প্রয়োজনীয় পরীক্ষা নিরীক্ষা করানোর ইচ্ছা পোষন করেন। পরে সোমবার দুপুরেই সীমান্ত বিজয় সরকারের রোগ নির্ণয়ের জন্য তাঁকে সিলেট শহীদ শামসউদ্দিন হাসপাতালে প্রেরণ করেন।
বুধবার রাত সাড়ে ৮ টায় শামসউদ্দিন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের উদ্ধৃতি দিয়ে সুনামগঞ্জের সিভিল সার্জন ডা. শামছুদ্দিন জানান, শামসউদ্দিন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, আইইডিসিআর পরীক্ষা শেষে সীমান্ত বিজয় সরকার করোনা নেগেটিভ অর্থাৎ তিনি করোনায় আক্রান্ত নয় বলে জানিয়েছে।