আজ জগন্নাথদেবের রথযাত্রা

স্টাফ রিপোর্টার
সনাতন ধর্মবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব শ্রী শ্রী জগন্নাথদেবের রথযাত্রা আজ বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বছর আষাঢ় মাসের শুক্লপক্ষের ২য়া তিথিতে রথযাত্রা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। এর সাতদিন পর শুক্লপক্ষেরই দশমী তিথিতে রথের ফিরতি টান অনুষ্ঠিত হয়। একে বলা হয় উল্টোরথ। এবার উল্টোরথ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১২ জুলাই শুক্রবার। রথযাত্রা অনুষ্ঠানের পক্ষাধিককাল পূর্বের পূর্ণিমা তিথিতে উপাস্য দেবতার স্নানযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। মানুষের মাঝে সম্প্রীতি শান্তি ও মৈত্রীর পরিবেশ গড়ে তোলার জন্যই শ্রী জগন্নাথ, বলদেব, সুভদ্রা মহারানীর বিগ্রহগণ উৎসব লগ্নে মন্দির থেকে রাজপথে সবাইকে দর্শন দানের জন্য বেরিয়ে আসেন।
ভগবান জগন্নাথদেব হলেন শ্রীকৃষ্ণ স্বয়ং, যিনি জগতের নাথ বা জগদীশ্বর রূপে প্রকাশিত। বৃন্দাবন থেকে মহারাজ নন্দসূত শ্রীকৃষ্ণ তার দ্বারকালীলায় রত হলেন। সূর্যগ্রহন উপলক্ষে শ্রীকৃষ্ণ যখন কুরুক্ষেত্রে যান, তখন তার জ্যেষ্ঠ ভ্রাতা বলরাম ও ভগিনী সুভদ্রা এবং দ্বারকা থেকে অনেকেই তার সঙ্গে গিয়েছিলেন। সেই সময় ব্রজবাসী ও সূর্যগ্রহণ উপলক্ষে কুরুক্ষেত্রে গিয়েছিলেন। কুরুক্ষেত্রে বৃন্দাবনে গোপ-গোপীদের সাথে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের সাক্ষাৎ হলো। ব্রজবাসী ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে তার বাল্যলীলাস্থল বৃন্দাবনে ফিরিয়ে নিতে চেয়েছিলেন। তারা তাকে রাজবেশে দেখতে চাইলেন না। তারা শ্রীকৃষ্ণকে বৃন্দাবনে ফিরিয়ে নিয়ে ব্রজের বেশে দেখতে চাইলেন এবং তার সাহচার্য পেতে উন্মুখ হলেন। তখন ব্রজবাসী কৃষ্ণ, বলরাম ও সূভদ্রা দেবীর রথের ঘোড়া ছেড়ে দিয়ে নিজেরাই রথ টানতে টানতে বৃন্দাবন নিয়ে গেলেন। সে ঘটনা স্মরণ করে ভক্তরা আজো পুরীর জগন্নাথ মন্দির থেকে ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে রথে টেনে বৃন্দাবনে নিয়ে যান।
জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা উপলক্ষে শ্রী শ্রী জগন্নাথ জিউর মন্দির পরিচালনা কমিটির আয়োজনে শ্রী শ্রী জগন্নাথ জিউর মন্দির ও পশ্চিম নতুন পাড়া রাধাকৃষ্ণ মন্দিরে ১০ দিন মহোৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।
এছাড়াও আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) ষোলঘর শ্রীশ্রী কালাচাঁন ও গোপাল জিউর আখরায় ৯ দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করেছে। বিকাল ৪টায় শুরু হবে জগন্নাথদেবের বর্ণাঢ্য রথযাত্রা।