আশার বাণী শোনালেন রেল ও এডিবি’র প্রতিনিধি দল

বিজয় রায়, ছাতক
ছাতক-সিলেট রেল লাইন পুনঃসচলের আশার বাণী শোনালেন ছাতকে পরিদর্শনে আসা রেল ও এডিবি’র প্রতিনিধি দল। ছাতক-সিলেট রেল লাইন আধুনিকায়ন করার গৃহীত পরিকল্পনার কথা বললেন প্রতিনিধি দলের কর্মকর্তারা। সব ঠিকঠাক থাকলে ২০২৩ সালের জুন-জুলাই মাসের মধ্যে ছাতক-সিলেট রেল লাইনের আধুনিকায়নের কাজ শুরু হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন প্রতিনিধি দলের প্রধান সিলেট-শায়েস্তাগঞ্জ রেল লাইনের দায়িত্বে থাকা সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী আনোয়ার হোসাইন।
রবিবার বিকেলে ছাতক বাজার রেলওয়ে স্টেশনে জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সুধীজনদের সাথে মতবিনিময়কালে ছাতক-সিলেট রেল লাইন পুনরায় চালু করা বিষয়ে এসব সম্ভাবনার কথা বলেন তিনি।
এর আগে ছাতক-সিলেট রেল লাইনের সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ছাতক-আফজলাবাদ অংশ পরিদর্শন করেন। মতবিনিময়কালে তিনি মুঠোফোনে সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের সাথেও এ বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।
সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী আনোয়ার হোসাইন বলেন, সিলেট-ছাতক রেল লাইনের মধ্যে বন্যায় অধিক ক্ষতি সাধিত হয়েছে ছাতক-আফজলাবাদ ১২কিলোমিটার, আংশিক ক্ষতি হয়েছে আফজলাবাদ থেকে খাজাঞ্চি পর্যন্ত আরো ১২ কিলোমিটার। ক্ষতিগ্রস্ত লাইন মেরামতের জন্য ইতিমধ্যেই ২২ কোটি টাকার প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। পরবর্তিতে উর্ধ্বতন কতৃপক্ষের নির্দেশে সিলেট-ছাতক রেল লাইনকে আধুনিকায়ন এবং সুনামগঞ্জ পর্যন্ত বর্ধিতকরণে ২০২ কোটি টাকার নুতন প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে।
মতবিনিময়কালে উপস্থিত স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ছাতক রেল এর ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং পর্যাপ্ত রাজস্ব সরকারী কোষাগারে জমা হওয়ার বিভিন্ন ইতিবাচক দিক তুলে ধরেন। পরে তিনি বন্ধ থাকা দেশের একমাত্র রাষ্ট্রীয় কংক্রিট স্লীপার কারখানা পরিদর্শন করে কারখানাটি পুনরায় চালু করার ব্যাপারে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বলেন। এসময় রেলওয়ের সম্পদ রক্ষণাবেক্ষণে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।
প্রতিনিধি দলের অন্যান্য হলেন রেলওয়ের উর্ধ্বতন সহকারী প্রকৌশলী জুয়েল হোসেন, উর্ধ্বতন সহকারী প্রকৌশলী জুলহাস মাহমুদ, সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী ছাতক জুবায়ের আহমদ সর্দার, এডিবি’র কনসালডেন্ট রাকিবুল ইসলাম।
বক্তব্য রাখেন ছাতক পৌরসভার সাবেক মেয়র আবুল ওয়াহিদ মজনু, ছাতক প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ হারুন-অর রশীদ, পৌর কাউন্সিলর জসিম উদ্দিন সুমেন, ব্যবসায়ী নুরু মিয়া তালুকদার, ছাতক ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক শামছু মিয়া প্রমুখ।
এসময় সাংস্কৃতিক সংগঠক তপন তরফদার, আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল আওয়াল, আফজাল হোসেন, ছাতক প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আব্দুল আলিম, অর্থ সম্পাদক বিজয় রায়, ছাতক ডিড রাইটার সমিতির সেক্রেটারী রঞ্জন কুমার দাস, সাংবাদিক আমিনুল ইসলাম আজির, ডিড রাইটার সাহাব উদ্দিন, রেলওয়ের উপ সহকারী প্রকৌশলী আব্দুন নূর, ছাতক রেলওয়ের মহাব্বত আলী, শওকত আলী, সুহেল আহমদ, আরিফ আহমদ, আবু বক্কর সিদ্দীক, দিলোয়ার হোসেন সহ স্থানীয় লোকজন উপস্থিত ছিলেন।