ইভিএম প্রকল্পটি প্রক্রিয়াধীন-পরিকল্পনামন্ত্রী

সু.খবর ডেস্ক
ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) কেনার প্রকল্প জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় ওঠেনি। এছাড়া ডলারের মূল্যবৃদ্ধির কারণে প্রকল্পের মেয়াদের সঙ্গে বাড়ছে কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ প্রকল্পের খরচ।
মঙ্গলবার একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সভার পর সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।
পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, একনেকের আজকের সভার তালিকায় ইভিএম কেনার প্রকল্পটি ছিল না। প্রধানমন্ত্রী এটা নিয়ে জানতেও চাননি। তাই আমরা স্বপ্রণোদিত হয়ে কিছু জানাতেও চাইনি। তবে ইভিএম প্রকল্পটি প্রক্রিয়াধীন।’
দুই লাখ ইভিএম কেনার জন্য একটি প্রকল্প প্রস্তাব চূড়ান্ত করেছে নির্বাচন কমিশন। আট হাজার ৭১১ কোটি টাকার প্রকল্পটির ব্যয় বিশ্লেষণ করছে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়।
এমন পরিস্থিতিতে আগামী জাতীয় নির্বাচনে ১৫০টি আসনে ভোটগ্রহণে ইভিএম ব্যবহার হবে কি না জানতে চাইলে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘এ বিষয়ে জাতীয় নির্বাচন পরিচালনা পর্ষদ চিন্তা ভাবনা করবে।’
কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ প্রকল্পটি দ্বিতীয়বারের মতো সংশোধনের জন্য অনুমোদন হয়েছে একনেক সভায়। এটিসহ ১০ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকার মোট ১১টি প্রকল্প অনুমোদন হয়।
কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ প্রকল্পের খরচ বাড়ল ৩১৫ কোটি টাকা। ডলারের মূল্যবৃদ্ধির কারণে খরচের সঙ্গে আরও এক বছর বাড়ানো হয়েছে প্রকল্পের মেয়াদও। এর আগে গত বছরের নভেম্বর মাসে প্রকল্পটি সংশোধনের প্রস্তাব দিয়ে পরিকল্পনা কমিশনে পাঠায় সেতু কর্তৃপক্ষ।
সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম, পরিকল্পনা বিভাগের সচিব সত্যজিত কর্মকার, পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য (সচিব) আব্দুল বাকি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সূত্র : ঢাকাটাইমস