এসসি বালিকায় সেশন ফি’র টাকা ফেরৎ দেওয়া হচ্ছে

স্টাফ রিপোর্টার
সরকারি প্রজ্ঞাপন ছাড়াই সুনামগঞ্জের সরকারি এসসি (সতীশ চন্দ্র বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়) বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে নেওয়া সেশন ফি’র ১৮৭২ টাকাই গেল বৃহস্পতিবার থেকে ফেরৎ দেওয়া হচ্ছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের নির্দেশেই এই টাকা ফেরৎ পাচ্ছে শিক্ষার্থীরা।
প্রসঙ্গত. সরকারি এসসি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির অর্থাৎ (২০২২ ইংরেজি’র) এবারের পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে গত কয়েক দিন হয় অগ্রিম ৬ মাসের বেতন ৯০ টাকা, ৬ মাসের টিফিন ফি ৪৫০ টাকা এবং ৬ মাসের সেশন ফিসহ ১৮৭২ টাকা আদায় করা হয়েছিল।
মাধ্যমিক শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে এ ধরণের কোন প্রজ্ঞাপন জারি না হওয়ায় জেলার অন্য কোন বিদ্যালয়ে এই টাকা আদায় করা হয় নি। স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিকে এই নিয়ে প্রতিবেদন ছাপা হবার পর বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিজেই শ্রেণি কক্ষে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের টাকা ফেরৎ নেবার জন্য নির্দেশ দেন।
সরকারি এসসি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শ্রেণি শিক্ষক আমিনুল ইসলাম বললেন, প্রধান শিক্ষক স্যারের নির্দেশে এই টাকা আদায় হয়েছিল। যেহেতু সেশনকাল বেড়েছে, এজন্য ২৪০ জন শিক্ষার্থীকেই ৬ মাসের বেতন, টিফিন ও সেশন ফি দিতে বলা হয়েছিল। পরে স্যার (প্রধান শিক্ষক হাফিজ মো. মাসহুদ চৌধুরী) নিজেই শ্রেণি কক্ষে উপস্থিত হয়ে শিক্ষার্থীদের জানিয়েছেন, বাড়তি সময়ের সেশন ফি নেবার প্রজ্ঞাপন হলেই আমরা টাকা নেব। আপাতত নেওয়া হবে না। যারা দিয়েছে শ্রেণি শিক্ষকের কাছ থেকে টাকা ফেরৎ নিয়ে নেবে। এরপর থেকেই টাকা ফেরৎ দেওয়া হচ্ছে। বৃহস্পতিবার কিছু দেওয়া হয়েছে। শনিবার থেকে স্কুল বন্ধ থাকলেও অন্যরা এসে টাকা ফেরৎ নিতে পারবে।