ওঠা হলো না সেমিফাইনালে

সু.খবর ডেস্ক
কয়েক যুগের ক্রিকেট ইতিহাসে স্বর্ণযুগ পার করছে বাংলাদেশ। এবারের বিশ্বকাপে সেরা সময় পার করছে লাল-সবুজের দল। ব্যাটে-বলে সবার সমীহ আদায় করে নিয়েছেন সাকিব-তামিমরা। দুর্দান্ত লড়াই করেও আসরে সেমিফাইনালে জায়গা করতে পারল না টাইগাররা। ভারতের বিপক্ষে গ্রুপপর্বের অষ্টম ম্যাচে ২৮ রানে হেরে ভেঙে গেল সেমিফাইনালে ওঠার স্বপ্ন। ৫ জুলাই পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটা এখন কেবলই নিছক আনুষ্ঠানিকতার হয়ে রইল।
দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে আসরে দুর্দান্ত সূচনা করেছিল বাংলাদেশ। পরের ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পকেটে থাকা ম্যাচ হাতছাড়া হয়েছে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ম্যাচটা হেরে বড় ব্যবধানে। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচটা পানিতে ভেসে যাওয়ায় বিপদে পড়ে যায় টাইগাররা। পঞ্চম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে টিকিয়ে রাখে সেমিফাইনালের স্বপ্ন। পরের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হারে আবার শঙ্কায় পড়ে যায় মাশরাফিবাহিনী। সপ্তম ম্যাচে আফগানিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারানোর পর লড়াইয়ে টিকে ছিল বাংলাদেশ। তবে ভারতের বিপক্ষে হারের পর আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হলো সেমিফাইনালে ওঠার স্বপ্ন।
এবারের আসরে বাংলাদেশের অনেক অর্জন রয়েছে। ব্যাটসম্যান হিসেবে এই প্রথম কোনো আসরে পাঁচশর্ধো রান করেছেন কোনো টাইগার ব্যাটসম্যান। ৭ ম্যাচে সাকিবের সংগ্রহ ৫৪২ রান। বল হাতে মুস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনরা আলো ছড়িয়েছেন। ৭ ম্যাচে ১৫ উইকেট নিয়ে নিজের সেরা ফর্ম ফিরিয়ে এনেছেন মুস্তাফিজ। ব্যাটের পর বল হাতে ১১ উইকেট নিয়ে পাদপদ্রীপের সবটুকু আলো নিজের করে নিয়েছেন সাকিব। কম যাননি সাইফুদ্দিনও। ৭ ম্যাচে তিনি নিয়েছেন ১০ উইকেট। লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতদের ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সও ছিল দারুণ।
খেলায় হারজিত থাকবেই। বাংলাদেশের পারফরম্যান্স ক্রিকেটপ্রেমীদের মন জয় করেছে। সাকিবদের হার না মানা মনোভাবে জয়জয়কার সর্বত্র। অস্ট্রেলিয়া, ভারত, ইংল্যান্ডের মতো দলগুলোর বিপক্ষে বাংলাদেশের শেষ পর্যন্ত লড়াই করেছে। ভাগ্য সহায় থাকলে আরো দুটি ম্যাচ জিততে পারতো মাশরাফির দল।
এবার হয়নি, আগামীতে হবে। এবারের বিশ্বকাপ নতুন করে স্বপ্ন দেখাচ্ছে বাংলাদেশকে। গত আসরে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা দলটি এবার সেমিফাইনালের দরজা থেকে ফিরে এসেছে। আগামী বিশ্বকাপে সেমিফাইনাল-ফাইনালে খেলার স্বপ্ন দেখছেন দেশবাসী। ভালো খেলার এই ধারাবাহিকতা বজায় রাখলে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জয় দূরে নয়। জয় বাংলা।
সূত্র : সমকাল