ওয়েজখালীতে মা ছেলেকে নির্যাতন- স্বামী-স্ত্রী জেল হাজতে

স্টাফ রিপোর্টার
শহরের ওয়েজখালীতে শিশুর ঝগড়াকে কেন্দ্র করে নিরীহ পরিবারের মা-ছেলেকে নির্মমভাবে মারধর করেছে প্রতিবেশী বিনোদ মন্ডল ও তার স্ত্রী রুক্ষিনী দাস।
সোমবার দুপুরে ওয়েজখালীর বিধবা শিপ্রা রানীর বসবাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। দায়ের কোপে গুরুতর আহত হয়েছেন শিপ্রা দাস (৩০) ও তার ছেলে অয়ন দাস (১৩)।
ঘটনার পরপরই স্থানীয়রা মা-ছেলেকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। তাদের দুই জনই গুরুতর জখম হয়েছে। সদর হাসপাতালে ভর্তি আছেন তারা। এ ঘটনায় মারধরকারী বিনোদ মন্ডল ও তার স্ত্রী রুক্ষিনী দাসের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন আহত শিপ্রা দাস। পুলিশ অভিযুক্ত বিনোদ মন্ডল ও তার স্ত্রী রুক্ষিনী দাসকে মঙ্গলবার সকালে গ্রেফতার করেছে। পরে গ্রেফতারকৃতদের আদালতে হাজির করা হলে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন।
এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. শহীদুল্লাহ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,‘ মা-ছেলেকে মারধরের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ স্বামী-স্ত্রী দুইজনকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছে। আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।