খরচার ও জোয়ালভাঙ্গা বাঁধের পোস্ট-ওয়ার্ক নিরীক্ষা করে প্রতিবেদন দেয়ার অনুরোধ

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার গৌরারং ইউনিয়নের খরচার ও জোয়ালভাঙ্গা হাওরের বাঁধ নির্মাণ কাজের পোস্ট-ওয়ার্ক পরিমাপ গ্রহণের ক্ষেত্রে নিরীক্ষা করে প্রতিবেদন দেয়ার অনুরোধ জানানো হয়েছে।
সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের পওর (পরিচালনা ও রক্ষণাবেক্ষণ) উপ বিভাগ-৩ এর উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী রঞ্জন কুমার দাসকে এই দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।
সুনামগঞ্জ পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক ভূঁইয়া গত ২৫ মার্চ (স্মারক নং-এফ-২/১২৩১) উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী রঞ্জন কুমার দাসকে পোস্ট-ওয়ার্ক পরিমাপ গ্রহণের ক্ষেত্রে নিরীক্ষা করে প্রতিবেদন দেয়ার অনুরোধ জানান।
সুনামগঞ্জ পাউবোর উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী রঞ্জন কুমার দাস চিঠি পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে বলেন,‘সদর উপজেলার করচার ও জোয়ালভাঙ্গা হাওরের ৪৬, ৪৭ ও ৪৮ নং প্রকল্পগুলো বিশেষভাবে দেখার জন্য বলা হয়েছে। ৪১ নং প্রকল্পটি দেখেছি, অন্যগুলো আগামী সপ্তাহে দেখব।’
প্রসঙ্গত, সদর উপজেলার দেখার হাওর, জোয়াল ভাঙা ও খরচার হাওরে ৮ টি প্রকল্পের কাজে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বিল প্রদান বন্ধ রাখতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।
পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বকর সিদ্দিক ভূঁইয়া গত ২৪ মার্চ সদর উপজেলার কাবিটা বাস্তবায়ন ও মনিটরিং কমিটির সদস্য সচিব পাউবোর উপ সহকারি প্রকৌশলী আশরাফুল সিদ্দিকীকে বিল স্থগিত রাখতে চিঠি দিয়েছেন।
অভিযোগ রয়েছে জোয়াল ভাঙ্গা হাওরের ৪৩ নং ৪৬ নং পিআইসি কাজ করেছেন দেখার হাওরে। এসব বিষয়ে পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে অভিযোগ করেছেন এলাকার স্মৃতিরতœ দাস ও সাহাবুদ্দিন আহমদ।