খাদ্য গোদামের সামনে থেকে ৯০০ বস্তা চাল আটক

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জের খাদ্য গোদামের সামনে থেকে আশুগঞ্জ থেকে আসা ৯০০ বস্তা চাল আটক হয়েছে। এই চালের বস্তার গায়ে উল্লেখ রয়েছে কয়ছর অটো রাইস মিল, সুনামগঞ্জ। সোমবার সন্ধ্যায় এই চাল জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহুল চন্দ আটক করে জেলা খাদ্য কর্মকর্তাকে সমঝে দিলেও মঙ্গলবার রাত ১০ টা পর্যন্ত এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়নি।
জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা বলেছেন, স্থানীয় বাজার থেকে ধান না কিনে মিলারর অনৈতিকভাবো বাইরে থেকে খাদ্য গোদামে চাল সংগ্রহের জন্য নিয়ে এসেছেন সন্দেহে এই চালের ট্রাক আটক করা হয়। চাল বহনকারী ট্রাকের চালক শাহাদাত হোসেনকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে।
ম্যাজিস্ট্রেট রাহুল চন্দ জানিয়েছেন, তিনি বিকাল সোয়া ৫ টায় চাল আটক করে সংশ্লিষ্ট সকলকে জানিয়ে, সন্ধ্যা ৭ টায় জেলা প্রশাসক (জেলা ম্যাজিস্ট্রেট) মহোদয়ের সামনে চালক ও ট্রাক নিয়ে আসেন।
অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শরিফুল ইসলাম জানান, তাদের সন্দেহ হচ্ছে এই চাল খাদ্য গোদামে দেবার জন্য নিয়ে আসা হয়েছে।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেন, বিষয়টি খুবই স্পর্শকাতর, আমাদের স্থানীয় কৃষকরা ধান বিক্রি করতে পারছে না। অথচ. গোদামে দেবার জন্য চাল বাইরে থেকে এসে থাকলে, সেটি দু:খজনক হবে। বিষয়টি সকলেরই খতিয়ে দেখতে হবে।
কয়ছর অটো রাইস মিলের মালিক শহরের হাজিপাড়ার ব্যবসায়ী রাসেল আহমদ। রাসেল আহমেদের বাবা সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম বলেন, কয়ছর অটো রাইস মিলের একটি যন্ত্র হঠাৎ বিকল হওয়ায় এই চাল পরিস্কার করার জন্য আশুগঞ্জে পাঠানো হয়েছিল। আশুগঞ্জ থেকে পরিস্কার করে ফিরিয়ে আনার পর খাদ্য গোদাম চত্বরে ট্রাকের স্থান সংকুলান না হওয়ায় বাইরে ট্রাক রাখা হয়েছিল। চাল আশুগঞ্জ থেকে কেনা হয়নি।
রাত ১০ টায় জেলা খাদ্য কর্মকর্তা জাকারিয়া মোস্তফা বললেন, তিনি থানায় এসেছেন মামলা করতে।
সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসি মো. শহীদুল্লাহ্ জানালেন, সারদিনই আমরা অপেক্ষা করেছি, এই বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলেছি। কিন্তু কেউ মামলা করতে আসেননি। চালক শাহাদাত হোসেন থানা হাজতে আছে।