গিরিধর উচ্চ বিদ্যালয়ের নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

স্টাফ রিপোর্টার
শাল্লার গিরিধর উচ্চ বিদ্যালয়ে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগে নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করেছেন জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম ।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনন্দ মোহন চৌধুরী ও সভাপতি মৃদুল চন্দ্র দাসের বিরুদ্ধে আর্থিক লেনদেনের অভিযোগ আসায় জেলা শিক্ষা অফিসার নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করেছেন বলে জানা গেছে।
এর আগে মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণকরী সৌরভ দাস, চয়নিকা রানী তালুকদার ও রনি চন্দ্র দাস অভিযোগ করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও জেলা মাধ্যমিক জেলা অফিসারের বরাবর। অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, গত ২৮ আগস্ট গিরিধর উচ্চ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ৪টি পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়। সেখানে ২৫ অক্টোবর নিয়োগ পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল। তবে হঠাৎ তারিখ পরিবর্তন করে ২৬ অক্টোবর পরীক্ষার দিন ধার্য করা হয়। এছাড়াও নিয়োগ দেয়া হবে তাদের পরীক্ষার পূর্বেই অর্থের বিনিময়ে নিয়োগ চূড়ান্ত করে রাখা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন অভিযোগকারীরা।
জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, অভিযোগের আসায় পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। অভিযোগের বিষয়টি কতটুকু সত্য কতটুকু মিথ্যা বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে। পরীক্ষার তারিখ পরবর্তিতে জানানো হবে।
প্রসঙ্গত, গিরিধর উচ্চ বিদ্যালয়ে কম্পিউটার ল্যাব অপারেটর পদে ১ জন, অফিস সহায়ক পদে ১ জন, আয়া ১ জন এবং ১ জন পরিচ্ছন্নতাকর্মী নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এসব পদের বিপরীতে অফিস সহায়ক পদে ১০টি, আয়া পদে ৫টি, পরিচ্ছন্নতাকর্মী ৭ টি এবং কম্পিউটার অপারেটর পদে ৫ টি আবেদন জমা পড়ে।