গ্রিড বিপর্যয়ে জড়িতরা চিহ্নিত, শিগগিরই ব্যবস্থা: প্রতিমন্ত্রী

সু.খবর ডেস্ক
বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে আরও কিছু সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। তিনি বলেছেন, জাতীয় গ্রিড বিপর্যয়ের ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করা হয়েছে এবং শিগগরিরই তাদের চাকরিচ্যুত করা হবে।
শনিবার দুপুরে কেরানীগঞ্জে সবুজ বাংলাদেশ প্রকল্পের উদ্বোধনের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
নসরুল হামিদ বলেন, ঢাকা ও এর আশপাশে বিভিন্ন জায়গায় লোডশেডিং হচ্ছে। কারণ গ্রিড বিপর্যয়ের পর পশ্চিমাঞ্চলের বিদ্যুৎ পূর্বাঞ্চলে আসছে না। তাই লোডশেডিং বেড়েছে, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে। আমরা আশা করেছিলাম হয়তো এ মাসে পরিস্থিতিটা স্বাভাবিক হবে। কিন্তু গ্রিড বিপর্যয়ের পর তা এখনো নিয়ন্ত্রণে আনা যায়নি। আমরা চাচ্ছি গ্রুত ঢাকা ও পশ্চিমাঞ্চলের বিদ্যুৎ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে। আমরা আশাবাদী আগামী এক—দুই সপ্তাহের মধ্যে ঢাকা ও তার আশে এলাকাগুলোকে লোডশেডিং মুক্ত করতে পারবো।
জ্বালানি তেলের দাম কমবে কি না এমন প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, তেলের উৎপাদন কমে গেছে। বিশ্বের যে পরিস্থিতি ভবিষ্যতে জ্বালানি তেল পাওয়া যাবে কি না তাই বলা যাচ্ছেনা। তবে আপাতত দাম বাড়ছে না।
বাঁধন সোসাইটি অব বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও অনুষ্ঠানের সভাপতি সীমা হামিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেরানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেহেদী হাসান।
সূত্র : বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম