ঘিলাচড়া ও দোয়ারাবাজার কলেজের ফলাফল বিপর্যয়

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি
এবারের এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলে বিপর্যয় ঘটেছে দোয়ারায়বাজার উপজেলার ঘিলাচড়া স্কুল এন্ড কলেজে। ঘিলাচড়া স্কুল ও কলেজে পাশের হার মাত্র ১৭ শতাংশ। ৪২জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে পাশ করেছে মাত্র ৭ জন। এর মধ্যে ২ জন ছিল নিয়মিত এবং ৫ জন ছিল অনিয়মিত শিক্ষার্থী। ফেল করেছে ৩৫জন শিক্ষার্থী।
কলেজের ফলাফল বিপর্যয়ে লেখাপড়ার মান নেয়া প্রশ্ন উঠেছে উপজেলা জুড়ে। ঘিলাচড়া স্কুল ও কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মো. শানোর মিয়া বলেন, আমি বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছি গত ২৯ এপ্রিল। আমাদের বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষকে নিয়া কিছু ঝামেলার কারণে ফলাফল বিপর্যয় ঘটেছে।
কলেজের পরিচনালনা কমিটির আমরা সদস্য মো. আব্দুল হক জানান, আমরা চেষ্টা করব আগামীতে যেন পরীক্ষার ফলাফল ভাল হয়।
এদিকে দোয়ারাবাজার কলেজ থেকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছে ১৮৩ জন। পাশ করেছে ৬৫ জন। এরমধ্যে এরমধ্যে বাণিজ্যে বিভাগ থেকে ১৮, মানবিক বিভাগ থেকে ৪৭ জন জন পাশ করেছে। আর ফেল করেছে ১১৮। পাশের হার ৩৫.৫২ শতাংশ।
দোয়ারাবাজার সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ একরামুল হক জানান, কলেজ সরকারিকরণ হওয়ায় প্রভাষকগণ আগের মত ক্লাস করতে চান না। এতেই ফলাফল বিপর্যয় হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও কলেজের গভর্নিংবডির সভাপতি বলেন, আগামীতে ভাল ফলাফল করার জন্য প্রভাষকদের নিয়মিত ক্লাস করা এবং সময়মত প্রতিষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আগামীতে কলেজ দুটিতে পরিচালনা কমিটির তদারকিও বাড়ানো হবে।