চট্টগ্রামেও জয় সিলেটের, ম্যাশদের পাঁচে পাঁচ

সু.খবর ডেস্ক
বিপিএলের ঢাকা পর্বে দুর্দান্ত খেলেছে সিলেট স্ট্রাইকার্স। চট্টগ্রাম পর্বেও একই ছন্দে মাশরাফি মর্তুজার দল। সোমবার চট্টগ্রাম পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডমিনেটর্সের বিপক্ষে ৫ উইকেটে জিতেছে সিলেট। পাঁচ ম্যাচের পাঁচটিতেই জয় তুলে নিয়ে বিপিএলের কোয়ালিফায়ারের পথে এক পা বাড়িয়ে দিয়েছে।
চট্টগ্রামের উইকেটে ভালো রান হয়। সেজন্য টস জিতে ঢাকার অধিনায়ক নাসির হোসেন শুরুতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু তেমন সুবিধা করতে পারেননি তারা। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১২৮ রান তোলে দলটি। জবাব দিতে নেমে ৪ বল থাকতে জয় তুলে নিয়েছে মাশরাফির দল।
ঢাকার ব্যাটিংয়ের শুরু ভালো হয়নি। এক রানে হারায় প্রথম উইকেট। গোল্ডেন ডাক মেরে ফিরে যান সৌম্য সরকার। ষষ্ঠ ওভারে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ওভারে পরপর দুই উইকেট হারায় ঢাকা। দলের রান তখন ৩২। নিয়মিত উইকেট হারানোর ওই যাত্রা অব্যাহত ছিল ঢাকার।
এর মধ্যে ওপেনার উসমান ঘানি ২৮ বলে চারটি চারে ২৭ রানের ইনিংস খেলেন। দিলশান মুনাবেরা খেলেন ১৭ রানের ইনিংস। মোহাম্মদ মিঠুন ১৭ রান করেন। অধিনায়ক নাসির হোসাইন দলের পক্ষে ৩১ বলে ৩৯ রানের এক ইনিংস খেলেন। এছাড়া আরিফুল হক করেন ২০ রান।
জবাব দিতে নেমে সিলেটের হয়ে ওপেনার মোহাম্মদ হারিস ৪৪ রান করেন। চারে নেমে মুশফিক ফিরে যান ২৭ রান করে। অল্প রানের লক্ষ্যেও জয় নিয়ে শঙ্কায় পড়েছিল সিলেট। তবে অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার থিসারা পেরেরা ১১ বলে ২১ রান করে জয় এনে দেন। তাকে ৫ বলে ১০ রান করে দারুণ সঙ্গ দেন আকবর আলী।
সিলেটের হয়ে ইমাদ ওয়াসিম এই ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিং করেছেন। পাকিস্তানের স্পিন অলরাউন্ডার ৪ ওভারে ২০ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। পেসার রুবেল হোসেন ৪ ওভারে দেন ২৫ রান। উইকেট নেন একটি। এছাড়া পেসার আমির ও স্পিনার নাজমুল ইসলাম একটি করে উইকেট নেন। ঢাকার হয়ে নাসির হোসেন ৪ ওভারে ১৯ রান দিয়ে এক উইকেট নেন। তাসকিন ৪ ওভারে মাত্র ১২ রান দিয়ে নেন একটি উইকেট। কিন্তু অন্য বোলাররা তাদের ঠিকঠাক সঙ্গ দিতে পারেননি।
সূত্র : সমকাল