চারদিন পর ভেসে উঠেছে বন্যার পানিতে ডুবে যাওয় যুবকের লাশ

দোয়ারাবাজার প্রতিনিধি
দোয়ারাবাজার উপজেলায় বন্যার পানিতে ডুবে যাওয়া নজির আহমদ (২৮) এর লাশ চারদিন পর ভেসে উঠেছে। গত সোমবার (২৯ জুন) রাত সার ৮ ঘটিকার সময় উপজেলার ছাতক-দোয়ারা-সুনামগঞ্জ সড়কের নোয়াগাঁও খালে ¯্রােতের পানিতে পা পিছলে পড়ে গিয়ে নিখোঁজ হন নজির আহমদ। নিখোঁজ নজির আহমদ উপজেলার পান্ডারগাঁও ইউনিয়নের মঙ্গলপুর গাজিনগর গ্রামের সিদ্দিক আলীর পুত্র।
এলাকাবাসীর সূত্রে জানা যায়, গত দুই সপ্তাহ আগে বিয়ে করেছেন নাজির আহমদ। সেই সুবাদে গত সোমবার রাতে সে মান্নারগাঁও ইউনিয়নের ডুলপশি গ্রামে শ্বশুর রজব আলীর বাড়িতে যাওয়ার পথে খালে বন্যার পানিতে নতুন ভাঙ্গন অংশটুকু পার হওয়ার সময় নোয়াগাঁও খালে পড়ে যান। এরপর থেকে গত চারদিন যাবৎ নিখোঁজ ছিলেন নজির আহমদ। স্থানীয়রা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাননি। মঙ্গলবার বিকেলে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল অনেক সময় চেষ্টা করেও নিখোঁজের সন্ধান পায়নি। বৃহস্পতিবার সকাল ৭ ঘটিকার সময় নজির আহমদের লাশ ভেসে উঠে।
দোয়ারা থানার ওসি মো.আবুল হাসেম বলেন, চারদিন পর নজিরের লাশ বৃহস্পতিবার সকালে নোয়াগাঁওর ভাঙ্গন এলাকার প্রায় ৪ মিটার নিচে পানির উপরে ভেসে উঠেছ। লাশ উদ্ধার করে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।