ছাতকের চেলানদী-মরা চেলানদী ও দোয়ারার খাসিয়া মারা নদী বালু মহাল ইজারার পুনঃ বিজ্ঞপ্তি স্থগিত

স্টাফ রিপোর্টার
ছাতকের চেলানদী-মরা চেলানদী ও দোয়ারাবাজারের খাসিয়া মারা নদী বালু মহাল ইজারার পুনঃ বিজ্ঞপ্তির সকল কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনের একটি বেঞ্চের বিচারপতি উবায়দুল হাসান মঙ্গলবার (১৯ মে) শুনানী শেষে এ স্থগিতাদেশ দেন। করোনা দুর্যোগের কারণে আদালতের স্বাভাবিক কার্যক্রম বন্ধ থাকায় ভার্চুয়াল আদালতে এই শুনানী অনুষ্ঠিত হয়।
ছাতকের কাওসার ট্রেডার্সের পক্ষে কাওসার আহমেদ হাইকোর্টে রিট পিটিশন করেন। যার নং-০৭/২০, তারিখ:১৯/০৫/২০২০ ইং। রিটের প্রেক্ষিতে উচ্চ আদালত বিজ্ঞপ্তি স্থগিতের জন্য সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসককে আদেশ দেন।
বালু মহাল ইজারার পুনঃ বিজ্ঞপ্তির উপর স্থগিতাদেশ জারির বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেন,‘ ইজারা কার্যক্রম স্থগিত রাখার বিষয়ে উচ্চ আদালতের একটি আদেশ জারি হয়েছে। আদেশের প্রেক্ষিতে আমরা সকল কার্যক্রম স্থগিত রেখেছি। ’
ছাতকের কাওসার ট্রেডার্সের মালিক কাওসার আহমেদ জানান, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসনের বালু মহাল দুটি ইজারা প্রদানের জন্য পরপর তিনবার দরপত্র প্রকাশ করা হয়। এতে অংশ নিয়ে সর্বোচ্চ দরদাতা হন তার প্রতিষ্ঠান। কিন্তু তার প্রতিষ্ঠানকে বালু মহাল ইজারা না দিয়ে গত ১৪ মে পুনঃদরপত্র বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন জেলা প্রশাসক। ফলে বাধ্য হয়ে সর্বোচ্চ দরদাতা প্রদানকারী হিসেবে তিনি উচ্চ আদালতে একটি রিট করেন। রিটের প্রেক্ষিতে উচ্চ আদালত বিজ্ঞপ্তি স্থগিতের জন্য আদেশ জারি করেন।
ভার্চুয়াল আদালতে রিটকারীর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন সুপ্রিম কোর্ট বার সমিতির সভাপতি এএম আমিন উদ্দিন।
প্রসঙ্গত, সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক একটি জাতীয় ও একটি আঞ্চলিক দৈনিকে গত ১৪ মে ‘বালুমহাল ইজারার জন্য উন্মুক্ত পুনঃদরপত্র বিজ্ঞপ্তি’ প্রকাশ করেন।