ছাতকের নিখোঁজ স্কুল ছাত্রীকে বড়লেখা থেকে উদ্ধার

ছাতক প্রতিনিধি
ছাতকের বহুল আলোচিত নিখোঁজ ডায়না বেগম ওরফে ডায়না সুন্দরীকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিখোঁজের প্রায় ২ মাস পর শনিবার (৩১ জুলাই) গভীর রাতে মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করা হয়। রবিবার বিকেলে আলোচিত ডায়না বেগমকে তার পরিবারের হাতে হস্তান্তর করা হয়।
জানা যায়, উপজেলার জাউয়াবাজার ইউনিয়নের মুলতানপুর গ্রামের ফনা উল্লাহর কন্যা ও পাইগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্রী ডায়না বেগম নিখোঁজ হয় গত ৩০ মে রাতে। ওই রাতে প্রকৃতির ডাকে ঘর থেকে বের হলেও সে আর ঘরে ফিরে আসেনি। এ ঘটনায় ডায়নার মা ফুলতেরা বেগম ৩ জুন ছাতক থানায় একটি জিডি (নং-১১৫) করেন।
শনিবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জাউয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই এহতেশাম বড়লেখা থানা পুলিশের সহায়তায় বড়লেখা উপজেলার শাহবাজপুর ইউনিয়নের ঘরুয়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী আব্দুল জলিলের বাড়ি থেকে ডায়না বেগমকে উদ্ধার ছাতক থানায় নিয়ে আসেন।
এ ব্যাপারে ডায়না বেগম পুলিশকে জানায়, মোবাইলের ফোনের মাধ্যমে ঘরুয়া গ্রামের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী আব্দুল জলিলের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। প্রেমের সূত্র ধরেই ৩০ মে রাতে পালিয়ে সে স্বেচ্ছায় প্রবাসী আব্দুল জলিলের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। এসময় আব্দুল জলিল সৌদিতেই অবস্থান করছিল। নিজের ভুল বুঝতে পেরে স্বেচ্ছাই সে প্রেমিকের ঘর ছেড়ে পুলিশের সাথে চলে আসে। কারো উপর তার কোন অভিযোগও নেই বলে সে পুলিশকে জানিয়েছে।
ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ নাজিম উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় ভিকটিম ও তার পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় মেয়েটিকে তার পরিবারের কাছে তুলে দেয়া হয়েছে।