ছাতকে প্রতিপক্ষের হামলায় সিএনজি চালক আহত

ছাতক প্রতিনিধি
ছাতকে প্রতিপক্ষের হামলায় আরজ আলী(৩৫) নামের এক সিএনজি চালক গুরুতর আহত হয়েছে। তাকে আশংকাজনক অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।
বুধবার বিকেলে উপজেলা চরমহল্লা ইউনিয়নের আশকাচর পয়েন্টে এ হামলার ঘটনা ঘটে। আরজ আলী জাউয়া ইউনিয়নের খিদ্রাকাপন গ্রামের মৃত আসদ আলীর পুত্র।
জানা যায়, মঙ্গলবার জাউয়া সিএনজি ষ্ট্যান্ডে যাত্রী উঠা-নামা নিয়ে আরজ আলীর সাথে অপর সিএনজি চালক চরমহল্লা ইউনিয়নের টেটিয়ারচর গ্রামের নূর উদ্দিনের পুত্র খালেদ আহমদের বাক-বিতন্ডা ও হাতা-হাতির ঘটনা ঘটে। এসময় খালেদের পক্ষ নিয়ে স্ট্যান্ডে থাকে একই গ্রামের সিএনজি চালক ফারুক মিয়া ও আব্দুস ছালাম আরজ আলীর সাথে তর্কে জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি স্ট্যান্ডের অন্যান্য চালকদের মধ্যস্থতায় তাৎক্ষনিক নিস্পত্তি করা হয়। বুধবার বিকেলে যাত্রী নিয়ে জাউয়া থেকে আশাকাচর পয়েন্টে পৌঁছলে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষরা দা ও লাঠি-সোটা নিয়ে আরজ আলীর উপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে আরজ আলী প্রান বাঁচাতে দৌড়ে পার্শবর্তী সানরাইজ কিন্ডারগার্টেনে গিয়ে আশ্রয় নেয়। এসময় কিন্ডারগার্টেনে পরীক্ষা চলছিল। হামলাকারী শ্রেণী কক্ষের ভেতরে প্রবেশ করে আরজ আলীকে দা-দিয়ে কুপিয়ে আহত করে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। এদিকে সশস্ত্র হামলাকারীদের মারমুখী আক্রমন দেখে কিন্ডারগার্টেনে পরীক্ষারত শিক্ষার্থীরা প্রানের ভয়ে দিক-বেদিক ছুটা-ছুটি করে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যায়। পরে মুমূর্ষ অবস্থায় আরজ আলীকে প্রথমে কৈতক ও পরে সিলেট ওসমানী মেেিকল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
খবর পেয়ে জাউয়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই শফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।