ছাতকে প্রতিপক্ষের হামলায় দোকানকোঠা ভাংচুর ও লুটপাট

ছাতক প্রতিনিধি
ছাতকে দোকান-কোঠা ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার ছাতক সদর ইউনিয়নের মল্লিকপুর রাস্তায়। এ ঘটনায় দোকানের মালিক, মল্লিকপুর গ্রামের ফজল উদ্দিনের পুত্র হেলাল উদ্দিন বাদী হয়ে মুহিবুর রহমানসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ থেকে জানা যায়, প্রতিপক্ষের বাড়ির রাস্তা সংলগ্ন গ্রামের সৌদি প্রবাসী আবু বক্করের একটি দোকান কোঠা ভাড়া নিয়ে মুদি মালের ব্যবসা করে আসছেন হেলাল উদ্দিন। দোকান কোঠাটি প্রতিপক্ষের বাড়ি সংলগ্ন হওয়ায় প্রতিপক্ষ ইউপি সদস্য তার কাছে মাসিক চাঁদা দাবী করে। ব্যবসার স্বার্থে হেলাল উদ্দিন প্রতিমাসে ওই ইউপি সদস্যকে ১ হাজার টাক করে চাঁদা দিয়ে আসছিল। সম্প্রতি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারনে দোকান বন্ধ থাকায় গত মাসের নিয়মিত টাকা দিতে পারেনি হেলাল উদ্দিন। এ নিয়ে গত ক’দিন ধরে দোকানী ও ইউপি সদস্যের মধ্যে কথা কাটাকাটি চলছিল। শনিবার বিকেলে চাঁদার টাকার না পাওয়ায় প্রতিপক্ষরা হেলাল উদ্দিনের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। এতে তার অর্ধলক্ষাধিক টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। থানায় দায়ের অভিযোগের ভিত্তিতে ছাতক থানার এসআই ইয়াছিন শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।