ছাতকে ভূমিহীন মকবুল আলীকে উচ্ছেদে মরিয়া দখলদার চক্র

ছাতক প্রতিনিধি
ছাতকের গোবিন্দগঞ্জে বটেরখাল নদীর চরে সরকারী ভূমিতে বসবাস করা ভূমিহীন মকবুল আলীকে উচ্ছেদ করতে একটি দখলদার চক্র মরিয়া হয়ে উঠেছে। প্রতিনিয়ত ভয়ভীতিসহ মকবুল আলীর উপর হামলা করে এ ভূমি দখল নিতে চেষ্টা করে যাচ্ছে তারা। বর্তমানে মকবুল আলীর বসতঘরের চতুর্দিকে বেড়া দিয়ে স্বাভাবিক চলাচলে মারাত্মক প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। ভূমিহীন মকবুল আলী গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের চাকলপাড়া গ্রামের মৃত আয়বর আলী ওরফে ফকির ধনের পুত্র।
মকবুল আলী জানান, ২০০৪ সাল থেকে বটেরখাল নদীর চরে সরকারী ভূমিতে সে ভূমিহীন হিসেবে পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছে। চরের ভূমি দখলে নিতে বিশ্বনাথ উপজেলার মাধবপুর গ্রামের লোকজন মকবুল আলীর উপর বিভিন্নভাবে অত্যাচার-নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে। গত ১৫ এপ্রিল ও ৭ মে এ ভূমি দখল করতে পরিকল্পিতভাবে মকবুল আলী ও তার পরিবারের উপর পৃথক হামলা চালায় প্রতিপক্ষরা।
এতে মকবুল আলী, তার স্ত্রী ইছরাতুন নেছা ও কন্যা নাজমা বেগম, নাছিমা আহত হয়। গুরুতর আহত ইছরাতুন নেছাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে প্রতিপক্ষরা মকবুল আলীর বসত ঘরের চারদিকে বেড়া দিয়ে চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে রেখেছে। ফলে এ পরিবারের লোকজনসহ স্কুল ও মাদ্রাসা পড়–য়া শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যেতে পারছে না।
মকবুল আলী আরো জানান, সিডিপি ব্রিক ফিল্ডের সামনে পূর্ব রামপুর মৌজার নদী ভরাট অংশ সরকারী খাস খতিয়ানভুক্ত ১৭.৬৯ একর ভূমি রয়েছে। এর মধ্যে বেশ কিছু ভূমি নিজ দখলে নিয়ে দ্বি-তল ভবনসহ স্থায়ী স্থাপনা নির্মাণ করেছে দখলদাররা। মকবুল আলীর বসত ভিটাসহ বাকী ভূমিরও মালিকানা দাবি করে দখলের পায়তারা করছে তারা। বর্তমানে মকবুল আলী তার পরিবার নিয়ে চরম বিপাকে রয়েছে।