ছাতকে ৩৪ মণ্ডপে অনুষ্ঠিত হচ্ছে দুর্গোৎসব

বিজয় রায়, ছাতক
ছাতকে এ বছর ৩৪টি মণ্ডপে পালন করা হচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বিদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব। দুর্গোৎসব পালন উপলক্ষে ইতিমধ্যেই মণ্ডপে-মণ্ডপে চলছে উৎসবের জমকালো প্রস্তুতি। ৩৪টি পূজা মণ্ডপের মধ্যে পৌর শহরে ১২টি পূজা মণ্ডপে দুর্গোৎসব পালিত হবে। প্রতিমা তৈরীতে ইতিমধ্যেই খড়-খুটা ও মাটির কাজ শেষ করে রং করার প্রস্তুতি চলছে। আর মণ্ডপে-মণ্ডপে চলছে আকর্ষনীয় সাজ-সজ্জা ও লাইটিংয়ের কাজ। ব্যস্ত সময় পাড় করছেন প্রতিমা শিল্পী ও ডেকোরেশন কারিগররা। দুর্গোৎসবের আগমনী বার্তায় মুখোরিত হয়ে উঠেছে উপজেলার ৩৪টি পূজা মণ্ডপ। আগামী ১ অক্টোবর শুরু হবে সনাতন ধর্মাবলম্বিদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব।
শারদীয় উৎসব উপলক্ষে পৌর কর্তৃপক্ষ ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে ইতিমধ্যেই পৌর ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ মতবিনিময় করেছেন। এছাড়া উপজেলার সবকটি পূজা কমিটি ও সনাতন ধর্মাবলম্বি নেতৃবৃন্দের সাথেও পৃথক মতবিনিময় সভা করে সরকারি নির্দেশ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে উৎসব পালন করার জন্য মতামত দিয়েছেন নেতৃবৃন্দ। সভায় পূজা চলাকালীন সময়ে নিরাপত্তা ও নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের বিষয়টি গুরুত্ব দেয়া হয়।
উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী পৌর শহরের গৌরাঙ্গ মহাপ্রভু আখড়া, শিববাড়ী, কালীবাড়ি, মন্ডলীভোগ চৈতন্য সংঘ, হাসপাতাল রোডের ত্রি-নয়নী সংঘ, তাতীকোনা, রেলওয়ে কলোনীর মহামায়া যুব সংঘ, কুমনা রাখাল তলা, ছাতক সিমেন্ট কারখানা, নোয়ারাই দুর্গা মন্দির, নোয়ারাই নাথপাড়া ও নোয়ারাই দাস পাড়া ভগবৎ সংঘ পূজা মণ্ডপে দুর্গোৎসব পালনের প্রস্তুতি চলছে।
এছাড়া ছাতক সদর ইউনিয়নের বাউসা চাইরচিরা, ইসলামপুর ইউনিয়নের ধনীটিলা মনীপুরী বস্তি, নোয়ারাই ইউনিয়নের শারপিননগর সাধক সংঘ, দক্ষিণ খুরমা ইউনিয়নের জাতুয়া নবীন সমাজ উন্নয়ন সংস্থা জাতুয়া, অন্নপূর্ণা পূজা মণ্ডপ জাতুয়া, মাতৃ সংঘ চৌকা, উত্তর খুরমা ইউনিয়নের হুলিয়ারগাঁও ধারনবাজার সর্বজয়া পূজা মন্ডপ, সিংচাপইড় ইউনিয়নের মহদী-১, মহদী-২, দয়ালতলা কালীপুর উত্তর পাড়া, কালীপুর, জাউয়াবাজার ইউনিয়নের গোপাল জিউর আখড়া কৈতক, খিদ্রাকাপন, ছৈলা-আফজলাবাদ ইউনিয়নের নবজাগরন সংঘ ছৈলা, প্রতিজ্ঞা যুব সংঘ ছৈলা, শিব সংঘ ছৈলা শাসন, অঙ্গিকার পূজা মন্ডপ ছৈলা দেবেরগাঁও, গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়নের বিশ্বম্ভরপুর-নাগরাখালী, দোলারবাজার ইউনিয়নের জাহিদপুর ও গীতা সংঘ বারগোপী পূজা ম-পে দুর্গোৎসব পালিত হবে। জাউয়াবাজার ইউনিয়নের কৈতক গ্রামের বাসিন্দা যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী দস্তিদারের বাড়িতে ব্যক্তিগত উদ্যোগে দুর্গোৎসব হবে।
উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাড. পীযুষ ভট্টাচার্য্য জানান, ব্যক্তি উদ্যোগে একটি সহ এ বছর উপজেলার ৩৪টি পূজা মণ্ডপে দুর্গোৎসব হবে। পূজা ম-পের একটি চূড়ান্ত তালিকা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে দেয়া হয়েছে।
তিনি আরো জানান, পূজা চলাকালীন সময়ে শব্দজনিত বা যে কোন কারণে অন্য ধর্মের উপাসনায় যাতে কোন ব্যাঘাত সৃষ্টি না হয়, সেজন্য প্রত্যেক পূজা কমিটিকে কিছু নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বরাবরের মতো এ বছরও ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সকলের আন্তরিক সহযোগিতায় সুন্দর ও স্বার্থকভাবে শারদীয় উৎসব পালিত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।