জগন্নাথপুরের গ্রাম পুলিশ সদস্যরা বেতন ও যাতায়াত ভাতা পাচ্ছেন না

জগন্নাথপুর অফিস
সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার গ্রাম পুলিশ সদস্যরা সাত মাস ধরে ইউনিয়ন পরিষদ অংশের বেতন ও দেড় বছর ধরে যাতায়াতভাতার টাকা পাচ্ছেন না বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার গ্রাম পুলিশ সদস্যরা বেতন ও ভাতা না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন উল্লেখ করে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে অভিযোগ তুলে ধরেন।
উপজেলার গ্রাম পুলিশ সদস্যরা জানান, উপজেলার আটটি ইউনিয়নে ৬০জন গ্রাম পুলিশ রয়েছে। প্রতিমাসে গ্রাম পুলিশ সদস্যরা তিন হাজার টাকা করে বেতন ভাতা পান। এসব ভাতার মধ্যে ১৫০০টাকা সরকারি ও ১৫০০ টাকা ইউনিয়ন পরিষদের ১% আয় থেকে পেয়ে থাকেন। প্রতি মাসে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে তারা বেতন ভাতা উত্তোলন করেন। কিন্তু গ্রাম পুলিশ সদস্যরা এপ্রিল মাস থেকে বেতন ভাতার ইউনিয়ন পরিষদ অংশের ১৫০০টাকা পাচ্ছেন না।
এছাড়া ২০১৭ সালের মার্চ মাস থেকে গ্রাম পুলিশ সদস্যরা থানায় হাজিরাভাতা হিসেবে দৈনিক ৩০০ টাকা করে প্রতিমাসে চারবার ১২০০ টাকা করে পাওয়ার কথা থাকলেও ৬০জন গ্রাম পুলিশের কেউ এখন পর্যন্ত যাতায়াতভাতা পাননি।
কলকলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশ কানু বৈদ্য বলেন, আমরা গ্রাম পুলিশ সদস্যরা বেতন ভাতা না পেয়ে খুব কষ্টে আছি। শুধুমাত্র সরকারি অংশের ১৫০০ টাকা পেয়ে খেয়ে না খেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছি।
জগন্নাথপুর উপজেলা গ্রাম পুলিশ কর্মচারী ইউনিয়ন সভাপতি কামাল খান ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফয়ছল আহমদ বলেন, গ্রাম পুলিশ সদস্যরা বেতনভাতার জন্য বার বার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানালেও এবিষয়ে কোন সুরাহা হচ্ছে না।
জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম মাসুম বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের হাট বাজার ও স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির ১% টাকা অপ্রতুল হওয়ায় গ্রাম পুলিশ সদস্যদের ইউনিয়ন পরিষদ অংশের বেতন ও যাতায়াত ভাতা বকেয়া রয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি দ্রুত তাদের বেতন ভাতা পরিশোধ করার।