জগন্নাথপুরের চিত্রশিক্ষক প্রণব বনিক আর নেই

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলাবাসীর প্রিয় মুখ, জগন্নাথপুর আর্ট স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, বাসুদেব মন্দির উন্নয়ন ও পরিচালনা কমিটির সভাপতি, জগন্নাথপুর বাজার বণিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক চিত্রশিল্পী প্রণব বণিক (৬০) আর নেই। গত শুক্রবার রাত ২টা ২৯ মিনিটে হার্ট অ্যাটাকে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাঁর মৃত্যু হয়।
মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দুই ছেলেসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন গুণগাহী রেখে গেছেন।
গত শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে প্রয়াতের মরদেহ স্থানীয় শহিদ মিনারে নিয়ে আসা হলেন বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনসহ হিন্দু ধর্মীয় সংগঠনের পক্ষ থেকে ফুলেল ভালবাসা আর
শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যম শেষ বিদায় জানান।
পরে স্থানীয় শশ্মানঘাটে শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।
প্রয়াতের স্বজনরা জানান, রাত দেড়টার দিকে বুকে ব্যথা অনুভব হলে তাকে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মধু সুধন ধরের নেতৃত্বে তাঁর চিকিৎসা শুরু হয় এবং তাকে সিলেট পাঠানোর প্রস্তুতি নেওয়া হয়। আকস্মিকভাবে তিনি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।
প্রয়াতের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সংসদ সদস্য ও পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি সিদ্দিক আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি সাবেক পিপি খায়রুল কবির রুমেন, জেলা আওয়ামী লীগ সদস্য সিরাজুল ইসলাম, নুরুল ইসলাম, জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, জগন্নাথপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আকমল হোসেন, উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু হোরায়রা ছাদ মাস্টার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দে, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যন মুক্তাদীর আহমদ, মহিল ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা আক্তার, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি ডাক্তার আব্দুল আহাদ, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন ভূইয়া, জগন্নাথপুর প্রেসক্লাব সভাপতি শংকর রায়, সহ সভাপতি তাজ উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার হাসান সুনু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অমিত দেব, সদস্য আলী আহমদ, সবুজ সিলেট/ইত্তেফাক প্রতিনিধি আবদুল হাই, জগন্নাথপুর বাজার বনিক সমিতির সভাপতি আফছর উদ্দিন ভুঁইয়া. বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাহির উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন, সহসভাপতি মাহবুবুর রহমান, সাইফুল ইসলাম রিপন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মুজিবুর রহমান, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রনয় কান্তি সূত্রধর খোকন, পূজা উদযাপন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রকৌশলী সতীশ গোস্বামী, পৌরসভা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি প্রদীপ সূত্রধর, সাধারণ সম্পাদক হীরা মোহন দেব, পূজা উদযাপন পরিষদের নেতা বিভাস দে,কাজল বণিক, শশী কান্ত গোপ, অরূপ সরকার, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রতিনিধি রূপক কান্তি দে, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক সমিতির সভাপতি আতাহার উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক গোপাল দাশ, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাফরোজ ইসলাম, সহ সভাপতি কল্যাণ কান্তি রায় সানী, সাধারণ সম্পাদক শাহ রুহেল প্রমুখ।