জগন্নাথপুরে ঋণের হতাশায় আত্মহত্যা

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি
জগন্নাথপুর পৌর এলাকার ইকড়ছই আলখানাপাড়ে হতাশাগ্রস্থ এক ব্যক্তি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে। পুলিশ ওই ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার করে রবিবার ময়না তদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছে।
পুলিশ ও স্থানীয় জানান, উপজেলার সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়নের তেঘরিয়া গ্রামের মৃত. সইরত উল্লার ছেলে সাজ্জাদুর রহমান সুজন (৪৭) কিছুদিন আগে তার ভগ্নিপতি পৌরসভার আলখানাপাড়ের মাঈন উদ্দিনের বাড়িতে বেড়াতে আসেন।
গত শনিবার সন্ধ্যায় মাঈনউদ্দিনসহ তার পরিবারের লোকজন তাদের এক স্বজন একই এলাকার ইকড়ছইয়ের বাসিন্দা মাহবুবুর রহমানের দাফনের কাজে মরহুমের বাড়িতে যান। সে সময় সুজন বাড়ির একটি কক্ষের দরজা জানালা বন্ধ করে ঘরের ফ্যানের রডের সঙ্গে রশি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করে রাতে থানায় নিয়ে আসে।
মাঈন উদ্দিন জানান, আমার এক আত্মীয়’র মৃত্যুতে তাকে শেষ বিদায় জানাতে সন্ধ্যা রাতে প্রয়াতের বাড়িতে যাই। জানাজা শেষে রাত ৮টার দিকে বাড়িতে ফিরে বদ্ধঘরে অনেক ডাকাডাকি করেও সুজনের কোনো সারাশব্দ না পেয়ে ঘরের ওপরে কিছু অংশ ভেঙে দেখতে পাই ফাঁস লাগিয়ে ঝুলে আছে সে। তিনি জানান, সুজন অনেকদিন ধরে ঋণগ্রস্থ হয়ে পড়ায় হতাশায় ভুগছিল।
স্থানীয় ওয়ার্ডে কাউন্সিলর সুহেল আহমদ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করেছি।
ঘটনাস্থল পরির্দশনকারী জগন্নাথপুর থানার উপপরির্দশক (এসআই) অনিক দেব বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে, ঋণের কারণে হতাশাগ্রস্থ হয়ে আত্মহত্যা করতে পারে। তবে ময়না তদন্তের পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।