জগন্নাথপুরে জ্বর-সর্দি-নিউমেনিয়ার প্রার্দুভাব

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুরে জ্বর-সর্দি-নিউনিয়া মারাত্মক আকারে দেখা দিয়েছে। প্রতিদিন এসব রোগে আক্রান্ত অর্ধশত রোগি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন।
শনিবার সকাল থেকে বিকেল তিনটা পর্যন্ত ৪১জন রোগি স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি হয়েছেন। এরমধ্যে জ্বর আর নিউমেনিয়ার আক্রান্ত ১৭ জন শিশু রয়েছে। অপর রোগিরা বিভিন্ন বয়সের নারী পুরুষ। এছাড়াও জগন্নাথপুরের বিভিন্ন হাটবাজারের ঔষধের দোকানগুলোতে রোগিদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে।
জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সূত্রে জানা যায়, গত একমাস ধরে প্রতিদিন জ্বর-সর্দি-নিউমেনিয়ায় আক্রান্ত ৩০ থেকে ৪০ জন রোগি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এসব রোগে শিশুরা বেশি আক্রান্ত।
উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে আসা জগন্নাথপুর পৌরশহরের ইসহাকপুর এলাকার আফছর উদ্দিন বলেন, গত শুক্রবার থেকে আমার সাড়ে পাঁচ মাসের শিশু কন্যা আলিয়া বেগম অসুস্থ হয়ে পড়ে। আমরা প্রথমে মনে করেছিলাম জ্বর। আজ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে তাকে নিয়ে আসলে কর্মরত চিকিৎসক জানান, শিশুটি নিউমেনিয়ায় আক্রান্ত। তাই তাকে ভর্তি করা হয়েছে।
উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের যুগলনগর গ্রামের সুরাই বিশ্বাস বলেন, তার দুইবছরের শিশু স্বপ্নিল বিশ্বাস দুই দিন ধরে জ্বরে ভুগছিল। তাকে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসলে চিকিৎসক তাকে ভর্তি দিয়েছেন।
এদিকে জগন্নাথপুর উপজেলা সদরের জগন্নাথপুর বাজারসহ উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারের ফার্মেসীগুলোতে জ্বর-সর্দির রোগিদের ভিড় পরিলক্ষিত হয়েছে।
জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মধুসুধন ধর বলেন, গরমজনিত কারণে জ্বর-সর্দি কাশি নিউমেনিয়ার প্রার্দুভাব গত একমাস ধরে দেখা দিয়েছে। প্রতিদিনই শিশুসহ বিভিন্ন বয়সের রোগিরা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসা নিচ্ছেন। গতকাল ৪১ জন রোগি ভর্তি হয়েছেন। এরমধ্যে শিশু সংখ্যা ১৭জন। তিনি বলেন, ভাইরাস রোগের মধ্যে শিশুরাই বেশি আক্রান্ত ।