জগন্নাথপুরে দুই প্রবাসিকে হোম কোয়ারেনেট পাঠালো ভ্রাম্যমাণ আদালত

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর পৌরশহরের ইকড়ছই আবাসিক এলাকায় দুই প্রবাসির হোম কোয়ারেল্টিনে রেখে ভ্রাম্যমান আদালত।আজ মঙ্গলেবার বিকেলে নির্হাহী ম্যাজিষ্টেট জগন্নাথপুর উপেজেলা সহকারী কমিশনার ( ভূমি) ইয়াসির আরাফাতের নেতৃত্বে এবং একদল সেনা সদস্যের উপস্থিত ভ্রাম্যমান আদালত ওই দুই প্রবাসিকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠান। এছাড়া জগন্নাথপুরর শিবগঞ্জ বাজারে মূল্য তালিকা না থাকায় দুই ব্যবসায়ীকে অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়েছে।
আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সুত্রে জানা যায়, চলতি মাসের ২৫ মার্চে যুক্তরাজ্য থেকে পৌরসভার ইকড়ছই এলাকার সিরাজুল ইসলাম ও একই এলাকার জাহির উদ্দিন দেশে ফিরেন। এই খবর পেয়ে আজ নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট জগন্নাথপুর সহকারী কমিশনার ( ভূমি) ইয়াসির আরাফাতের নেতৃত্বে ও লেফটেন্যান্ট মেহেদীর নেতৃত্বে একপ্লাটুন সেনা সদস্য উপস্থিতিতে দুই প্রবাসির বাড়িতে যান। এসময় দ্ই প্রবাসিকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখেন।
পরে করোনাভাইরাস উদ্ভূত পরিস্থিতি মোকাবেলায় জগন্নাথপুরের রাণীগঞ্জ ও শিবগঞ্জ বাজারে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হয়। প্রচারকালে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ করা হয় প্রয়োজনে বাহিরে থানা লোকজনের মধ্যে।
অভিযান পরিচালনার সময় শিবগঞ্জ বাজারে মূল্য তালিকা
দোকানে না সাটানোর দায়ে এক চাল ব্যবসায়ীকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৩৮ ধারা মোতাবেক দুই হাজার টাকা অর্থদণ্ড প্রদান করা হয়। এ সময় লেফটেন্যান্ট মেহেদীর নেতৃত্বে একপ্লাটুন সেনা সদস্য উপস্থিত ছিলেন।
ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক জগন্নাথপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার ( ভূমি) মো: ইয়াসির আরাফাত জানান, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরোস প্রতিরোধে দুই প্রবাসিকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। এছাড়া জনসচেতনামলূক প্রচার কাজ আমরা অব্যাহত রয়েছ্। বাজার স্থিতিশীল রাখতে উপজেলা প্রশাশনের নিয়মিত তদারকি চলছে।