নলজুর সেতু হওয়ার সাত বছর পর সংযোগ সড়ক উদ্বোধন

জগন্নাথপুর অফিস
সেতু হওয়ার সাত বছর পর জগন্নাথপুর উপজেলার বেগমপুর ঘোষগাঁও সড়কের নলজুর সেতুর সংযোগ সড়কের উদ্বোধন করা হয়েছে। বুধবার পরিকল্পনা মন্ত্রী এমএ মান্নান আনুষ্ঠানিকভাবে নলজুর সেতুর সংযোগ সড়কের উদ্বোধন করেন।
স্থানীয় সরকার জগন্নাথপুর উপজেলা কার্যালয় ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, ২০১১ সালের মাঝামাঝি সময়ে ওই সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়। ১১ কোটি ৪৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ১৪৯ মিটার দৈর্ঘ্যের ওই সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হয় ২০১৩ সালে নভেম্বরে। ২৩ নভেম্বর সেতুর উদ্বোধন করেন স্থানীয় সাংসদ তৎকালীন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। কিন্তু সেতুর এক পাশে সংযোগ সড়ক না থাকায় সেতু হওয়ার পরও সরাসরি যান চলাচল করতে পারছিল না।
উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের ঘোষগাঁও থেকে নলজুর সেতু হয়ে বেগমপুর হয়ে আউশকান্দি সড়কে যুক্ত হওয়া কথা সড়কটি। কিন্তু সেতুর এক পাশে মাত্র ২০০ মিটার সংযোগ সড়ক না হওয়ায় সেতুটি মূল সড়ক থেকে বিছিন্ন ছিল। সেতুটি নির্মাণের পর সংযোগ সড়ক নির্মাণের কাজ শুরু করে এলজিইডি। কিছু কাজ হওয়ার পর স্থানীয় এক ব্যক্তি তাঁর জমি দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। পরে এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে বিরোধ দেখা দিলে ওই ব্যক্তি তাঁর জমিতে দেয়াল নির্মাণ করেন। এ কারণে সংযোগ সড়ক আর হয়নি। এলজিইডির পক্ষ থেকে বারবার অনুরোধ করার পরও ওই ব্যক্তি জমি না দেওয়ায় জমি অধিগ্রহণের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।
স্থানীয় সরকার জগন্নাথপুর উপজেলা প্রকৌশলী গোলাম সারোয়ার জানান, সেতুর সংযোগ সড়কের জমি নিয়ে জটিলতা থাকায় সেতু হওয়ার পরও ৬২ লাখ টাকায় ১৯ শতাংশ জমি অধিগ্রহণ করা হয়। এরপর মেরিনা কনস্টাকশনের মাধ্যমে ২২ লাখ ৮১ হাজার টাকায় সংযোগ সড়কের কাজ শেষ করে বুধবার তা উদ্বোধন করা হয়।
উদ্বোধনকালে পরিকল্পনামন্ত্রীর একান্ত সচিব মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহবুব আলম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহফুজুল আলম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম, এলজিইডির উপজেলা প্রকৌশলী গোলাম সারোয়ার উপস্থিত ছিলেন।