জগন্নাথপুরে প্রধান শিক্ষক ক্ষমা চাওয়ায় উদ্ভূত সমস্যার সমাধান

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের রৌয়াইল উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন স্থগিত করাকে কেন্দ্র করে উদ্ভূত পরিস্থিতির সমাধান হয়েছে। গত শুক্রবার বিকেলে রৌয়াইল বাজারে সর্বস্তরের গ্রামবাসীর এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন রৌয়াইল উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো.আব্দুল কুদ্দুছ।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি দিলসুন্দর মিয়া, হাফিজুর রহমান, ফজলুল হক, আব্দুস সালাম, নজমুল হক, কুরেশ মিয়া, মঞ্জুর আহমদ আজাদ, শাহজাহান সিরাজী, সাদিকুর রহমান, বাচ্চু মিয়া,আলফু মিয়া, মিজানুর রহমান, শাখাওয়াত হোসেন আজাদ, মুক্তাদির আহমদ মুক্তা, দেবাংশু দাস মিটু, নাজমুল হক, রুনু আহমদ, আব্দুল আহাদ, মাহবুব হোসেন মিটু, আব্দুল ওয়াহাব লকুছ প্রমুখ।
সভায় রৌয়াইল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসলাম উদ্দিন ফকির উপস্থিত হয়ে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচনে ভোটার তালিকা প্রণয়নে নিজের ভুল স্বীকার করে দুঃখ প্রকাশ করেন। তিনি দ্রুততম সময়ের মধ্যে নির্বাচন আয়োজনের প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করে উপস্থিত সকলকে অতীতের যাবতীয় ভুল-ত্রুটি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখে বিদ্যালয় পরিচালনার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। উপস্থিত গ্রামবাসী বিদ্যালয়ের অতীত ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে সকল অব্যবস্থাপনা দূর করার আহবান জানান।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউপি সদস্য নাজমুল হক বলেন, ‘আমাদের গ্রামের সিলেটে বসবাসরত বিশিষ্ট ব্যক্তিদের আহবানে সর্বস্তরের গ্রামবাসীর সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নিজ আগ্রহে প্রধান শিক্ষক উপস্থিত হয়ে তার ভুল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। পরবর্তীতে গ্রামবাসী দ্রুত নির্বাচনের ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানালে তিনি তড়িৎ ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।’
এ বিষয়ে জানতে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আসলাম উদ্দিন ফকিরের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাঁকে পাওয়া যায়।
প্রসঙ্গত, গত ১৩ জুন রৌয়াইল উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু নির্বাচনের ভোটার তালিকায় ক্রুটি রয়েছে দাবী করে নির্বাচন স্থগিত করা হয়।