জগন্নাথপুরে বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির নির্বাচনী প্রচারণা জমে উঠেছে

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলা সদরের জগন্নাথপুর বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির নির্বাচনকে সামনে রেখে ব্যাপক প্রচার প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছে বাজার এলাকা। ইতিমধ্যে প্রার্থীদের ছবি সংবলিত পোস্টার সয়লাব হয়ে গেছে নির্বাচনী এলাকা।
স্থানীয় ব্যবসায়ীরা জানান, আগামী ১৪ মার্চ জগন্নাথপুর বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও যুগ্ম সম্পাদক পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বর্তমান সাধারণ সম্পাদক জাহির উদ্দিন (ফুটবল) ও বর্তমান যুগ্ম সম্পাদক জুনেদ আহমদ ভুঁইয়া (আনারস)।
যুগ্ম সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন লিটন মিয়া (মাছ), সামছুল হক (ডাব) ও বিশ্ব বৈদ্য (চাকা)।
নির্বাচনের দিন ঘনিয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে প্রার্থী ও সমর্থকরা নেমেছেন ব্যাপক প্রচারণায়। বাজারের ব্যবসায়ীরা ভোটার হলেও প্রার্থীদের পক্ষে তাদের আত্মীয়-স্বজনরা চালিয়ে যাচ্ছি বিরামহীন প্রচার। নির্বাচনে সংযোগ হচ্ছে গোষ্ঠীর লোকজন।
জগন্নাথপুর বাজারের ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম বলেন, ‘বাজারের ড্রেনেজ ব্যবস্থা খুবই নাজুক অবস্থা। একটু বৃষ্টির পানিতে গলিগুলোতে জলাবদ্ধতা দেখা দেয়। বাজারের সার্বিক উন্নয়নে তিনি দক্ষতার সঙ্গে দায়িত ¡পালনে ভূমিকা রাখতে পারবেন আমরা তাকেই বিজয়ী করবো।’
আরেক ব্যবসায়ী বকুল গোপ বলেন, ‘আমরা যোগ্য প্রার্থীকেই নির্বাচিত করতে চাই। যাদের ধারা আমাদের বাজারে অলিগলি, জলাবদ্ধতাসহ সার্বিক উন্নয়ন হবে।’
বর্তমান বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাহির উদ্দিন বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরেই ব্যবসায়ীদের সুখ দুঃখে তাদের পাশে আছি। প্রাণপণ প্রচেষ্টা করেছি ব্যবসায়ীদের অধিকার আদায়ে। বাজারের ধারাবাহিক উন্নয়নের স্বার্থে এবারও প্রার্থী হয়েছি।’
আরেক প্রার্থী জুনেদ আহমদ ভূঁইয়া বলেন, ‘ব্যবসায়ীদের সার্বিক সুযোগ সুবিধা আদায়ে কাজ করতে চাই। এজন্যই প্রার্থী হয়েছি। বিজয়ী হলে সর্বাত্মক চেষ্টা চালাবো বাজারের সার্বিক উন্নয়নে।’
নির্বাচনের প্রধান কমিশনার ডা. আব্দুল আহাদ বলেন, ‘সুষ্ঠু, অবাধ ও গ্রহণ যোগ্য নির্বাচণ সম্পন্নের লক্ষ্যে আমরা সকল প্রস্তুুতি গ্রহণ করেছি। আগামী ১৪ মার্চ ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এবার মোট ভোটার সংখ্যা ১ হাজার ৯৯ জন। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।’