জগন্নাথপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে বউ শাশুড়ীর মৃত্যু

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলার রানীগঞ্জ ইউনিয়নের মেঘারকান্দি গ্রামে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে বউ শাশুড়ীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুরের দিকে নিজ ঘরে পল্লী বিদ্যুতের সংযোগের তার ছিড়ে ঘরের গ্রীলে পড়লে গৃহকর্তা গিরিন্দ্র দাসের স্ত্রী সন্ধ্যা রানী দাস বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে চিৎকার দেন। শাশুড়ীর চিৎকার শুনে পুত্র রিংকু দাসের স্ত্রী সেবা রানী দাস শাশুড়ী কে রক্ষায় এগিয়ে এলে তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। এসময় পরিবারের লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সন্ধ্যায় কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন।
মেঘারকান্দি গ্রামের বাসিন্দা বকুল দাস জানান, আমার কাকী ও তার অন্তঃসত্ত্বা ছেলের বউ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহত হলে আমরা তাদেরকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাদেরকে মৃত ঘোষণা করেন।
স্থানীয় ইউপি সদস্য রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য নাজমুল হক জানান, মেঘারকান্দি গ্রামের দুই নারীর মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া বিরাজ করছে।
জগন্নাথপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই নারীর মৃত্যুর খবর পেয়েছি। ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ময়নাতদন্তের পর লাশ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে।