জগন্নাথপুরে বেড়েছে গরু চুরি

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুরে গরু চুরি রোধে কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণের জোর দাবি জানানো হয়েছে। সোমবার দুপুরে উপেজলা মাসিক আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় জনপ্রতিনিধিরা এমন দারি জানান।
সভায় জনপ্রতিনিধিরা জানান, হঠাৎ করে গরু চুরি বেড়ে যাওযায় কৃষকদের মধ্যে আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। এসময় গরু চুরি প্রতিরোধে পুলিশ প্রশাসনকে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য আহবান জানানো হয়।
পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম বলেন, সম্প্রতিকালে ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে গরু চুরির ঘটনা বেড়েছে। কৃষকের চোখে ঘুম নেই। উদ্বেগ্ন উৎকণ্ঠায় আছেন। সর্বশেষ গত তিনদিন পূর্বে চকাশিমপুর গ্রামের এক কৃষকের চারটি গরু চুরি হয়েছে। চুরি প্রতিরোধে পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য আমি সভায় আহবান জানিয়েছি।
সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তৈয়ব মিয়া কামালী জানান, আমাদের ইউনিয়নেও গরু চুরির ঘটনা ঘটছে। এতে করে কৃষকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। কৃষকদের সস্পদ রক্ষায় পুলিশকে এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, গরু চুরির লিখিত কোন অভিযোগ আমরা পাইনি। তবে চুরি রোধে পুলিশ কাজ করছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মেহেদী হাসানের সভাপতিেেত্ব উপজেলা সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব, নারী ভাইস চেয়ারম্যান ফারজানা বেগম, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মধু সুদন ধর, কলকলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল হাসিম,পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, মিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুল হক শেরিন,রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, সৈয়দপুর-শাহারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তৈয়ব মিয়া কামালী, আশারকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ আবু ইমানি, জগন্নাথপুর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রফিক আহমদ, প্রেসক্লাব সভাপতি শংকর রায়, বাজার বনিক সমিতিরি সভাপতি আফসর উদ্দিন ভূঁইয়া, উপজেলা আবাসিক বিদ্যুৎ সহকারি প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ, বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাহির উদ্দিন, শিক্ষক সাইফুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।