জগন্নাথপুরে মাদ্রাসা ছাত্রের খুনীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলা রানীগঞ্জ ইউনিয়নের আলমপুর গ্রামে গুলিতে নিহত মাদ্রাসা ছাত্র সাব্বির মিয়ার খুনীদের ফাঁসির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
গত শনিবার বিকেল ৫টার দিকে স্থানীয় নোয়াগাঁও ফুরক্বানিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা মাদ্রাসা প্রাঙ্গণ থেকে মিছিলটি বের হয়। গ্রামের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বিক্ষোভ মিছিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। এতে নোয়াগাঁও ফুরক্বানিয়া হাফিজিয়া মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক হাফিজ আজহার হোসাইন, সহকারী শিক্ষক হাফিজ রিপন আহমদ আহমদসহ প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও এলাকার লোকজন অংশ নেন।
মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক হাফিজ আজহার হোসাইন বলেন, দুই পক্ষের বিরোধে আমাদের মাদ্রাসার ছাত্র সাব্বিরের
প্রাণ কেড়ে নিল। হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় এনে তাদের ফাঁসির দাবি করছি আমরা।
জগন্নাথপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী রবিবার বিকেলে জানান, আলমপুর গ্রামের সংঘর্ষের ঘটনায়ও এখনও মামলা হয়নি। তবে মামলার প্রস্তুতি চলছে। এ ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেপ্তার হয়নি।
প্রসঙ্গত, আলমপুর গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা মজনু মিয়া ও তার আপন ভাই খালেদ মিয়ার মধ্যে স্থানীয় কুশিয়ারা নদীর তীরবর্তী বাসস্ট্যান্ডের মালিকানা জায়গা নিয়ে পূর্ব বিরোধে সংর্ঘষে জড়িয়ে পড়েন। সংর্ঘষকালে ঘটনাস্থল এলাকায় শিশু সাব্বির মিয়া (১০) দাঁড়িয়ে ছিল। ওই সময় প্রতিপক্ষের গুলিতে শিশু সাব্বির নিহত হন। আরও দুইজন গুলিবিদ্ধ হন। নিহত শিশুর নবীগঞ্জের কামারগাঁও নগরকান্দি গ্রামের আব্দুল কাইয়ুমের ছেলে। সে আলমপুরের নোয়াগাঁও ফুরক্বানিয়া হাফিজিয়ার মাদ্রাসার ৩য় শ্রেণীর ছাত্র। শিশু সাব্বির তার মামা ইজাজুল ইসলামের বাড়িতে থাকে পড়াশুনা করত।