জগন্নাথপুরে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে, আহত ২০

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর থেকে সুনামগঞ্জ জেলা শহরে যাওয়ার পথে একটি যাত্রীবাহী বাস জগন্নাথপুর উপজেলার কলকলিয়া ইউনিয়নের কলকলিয়া নামক স্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে আট মাসের শিশুসহ কমপক্ষ ২০ যাত্রী আহত হয়েছেন। বুধবার দুপুরে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।
তাদের মধ্যে গুরুতর আহত দুই জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। তাঁরা হলেন পাইলগাঁও ইউনিয়নের তেরাউতিয়া গ্রামের মতিউর রহমান (২৮) ও দিরাই উপজেলা সদরের বাসিন্দা হেলেন সরদার (৫০)। অপর আহতরা হলেন আট মাস বয়সী শিশু নাফি আহমদ, আয়েশা বেগম (৩০), লিমা বেগম (২৫), হাসানুজ্জামান (৪৫), আব্দুল মুহিত (৪০), ফারহা বেগম (৩), সিরেজা বেগম (৫০), আব্দুল হালিম (৭০), শাহানারা বেগম (৪০), সাজিদা বেগম (২৫), নাইওর বিবি (৬০), রুবেল মিয়া (২০), মনিকা রানী দেব (২৫), সন্দিপ দত্ত (২৮), অপু ঘোষ (২৭), লিপ্টু দাস (২৮), আরফা বেগম (৬)। তাদেরকে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়।
প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, জগন্নাথপুর উপজেলা সদরের বাসস্ট্যান্ড থেকে সুনামগঞ্জ জেলা শহরের উদ্দেশ্য গতকাল দুপুরে ছেড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী বাস (নং ঢাকা মেট্রো ঙ-১১১৩৩৭) কলকলিয়া আব্দুল কাদির সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে যায়। এতে ২০ জন যাত্রী আহত হন। আহতদের স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।
জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ওমর ফারুক জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত দুই জনকে আমরা আশংকাজনক অবস্থায় সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছি এবং অপর ১৮ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
জগন্নাথপুর থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) রাজিব রহমান জানান, সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করি। চালক পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা যায়নি।