জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়ক গর্তে আবারও দুই ট্রাক

জগন্নাথপুর অফিস
সংস্কারহীন জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ-রশিদপুর সড়কে গত চার মাস ধরে গর্তে পড়ে মালবাহী ট্রাক আটকে যানচলাচল বিঘিœত হচ্ছে বারবার। সর্বশেষ সোমবার ভোররাতে দুইটি মালবাহী ট্রাক জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কের জগন্নাথপুর পৌরশহরের হামজা কমিউনিটি সেন্টারের সামনের গর্তে আটকে যায়। ফলে ওই সড়কের যানবাহন চলাচল ব্যাহত হওয়ায় সীমাহীন দুর্ভোগ তৈরি হয়। তবে দুপুরে একটার দিকে দুইটি ট্রাক অপসারণ করা হয়েছে। এর আগের দিন গত রবিবার বিকেলে একই স্থানে আরেকটি ট্রাক আটকে যান চলাচলে বিঘœ ঘটে।
স্থানীয়রা জানান, সিলেট বিভাগীয় শহরের সঙ্গে জগন্নাথপুর উপজেলাবাসীর সরাসরি যোগাযোগের একমাত্র অবলম্বন হচ্ছে জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ-রশিদপুর সড়ক। এ সড়ক দিয়ে বিভাগীয় শহর সিলেট ও রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাতায়াত করতে হয়। দীর্ঘদিন ধরে সড়কের বেহালদশা বিরাজ করায় জনভোগান্তি চরমে উঠেছে। সড়কজুড়ে ভাঙাচোরা, খানাখন্দ ও বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। এসব গর্তে বৃষ্টির পানি জমে একাকার হয়ে যায়। গত জুন মাস থেকে চলতি মাস সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রায় প্রতিদিনই সড়কের গর্তে পড়ে ভারী যানবাহন আটকে পড়ে। কোন কোন দিন ৬ থেকে ৭ ঘন্টা পর্যন্ত যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে।
জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ-রশিদ-সিলেট সড়কের পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি নিজামুল করিম বলেন, বর্তমানে সড়কে যানবাহন চলাচল অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। সড়কে বিরাজমান অসংখ্য গর্তে যানবাহন পড়ে আটকে যায়। নষ্ট হচ্ছে গাড়ীর যন্ত্রাংশ। সংস্কারের জন্য একাধিকবার সংশিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। তারপরও কোন কাজ হচ্ছে না। দ্রুত সংস্কারের উদ্যেগ গ্রহণ করা না হলেও আমরা আন্দোলনের কর্মসূচী গ্রহণ করবো।
স্থানীয় সরকার অধিদপ্তরের জগন্নাথপুর উপজেলা প্রকৌশলী গোলাম সারোয়ার বলেন, জগন্নাথপুর-বিশ্বনাথ সড়কে সংস্কার কাজের জন্য ২০কোটি টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। বর্তমান টেন্ডার কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে