জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে সহযোগিতা করুন

স্টাফ রিপোর্টার
ইসলামিক ফাউন্ডেশন জেলা শাখার উদ্যোগে মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম প্রকল্পের প্রাক-প্রাথমিক, বয়স্ক, সহজ কোরআন শিক্ষা ও দারুল আরকাম এবতেদায়ী মাদ্রাসার শিক্ষকদের শিক্ষা কারিকুলাম ও পাঠ্যপুস্তক বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার দিনব্যাপী শহরের শহীদ আবুল হোসেন মিলনায়তনে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।
প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহা-পরিচালক শামীম মোহাম্মদ আফজাল। তিনি বলেছেন,‘বর্তমান আ.লীগ সরকার ইসলামিক ফাউন্ডেশনকে উন্নয়নের দিকে এগিয়ে নিয়েছে। ফাউন্ডেশনের বিভিন্ন কার্যক্রম এগিয়ে নিয়ে দেশের মানুষের উন্নয়ন করেছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইসলামিক ফাউন্ডেশনকে যে অবস্থানে এগিয়ে নিয়েছেন, তা সকল আলেম-ওলামাদের ধরে রাখতে হবে।’
মহাপরিচালক শামীম মোহাম্মদ আফজাল বলেন, ‘ইসলাম শিক্ষা দিতে চায় মওদুদীরা, কাদিয়ানীরা এবং জাকের নায়েক। এরা সবাই মওদুদীর প্রেতাত্মা মওদুদী-জামাত। কিন্তু তাদের দেয়া ইসলাম শিক্ষা দেশে জঙ্গিবাদ ও অনাচার যুক্ত হয়েছে। যতদিন পর্যন্ত তাদের এই শয়তানী কার্যক্রম বন্ধ না হবে, ততদিন পর্যন্ত জঙ্গিবাদ বন্ধ হবে না। এই জন্য সকল আলেম-ওলামাদের কড়া নজর রাখতে এবং জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে সহযোগিতা করতে হবে।’
তিনি বলেন,‘পাপ কাজ থেকে বিরত থাকার নাম জিহাদ। চোখ নিয়ন্ত্রণ করতে হবে, অবৈধ উপার্জন থেকে বিরত থাকতে হবে, লোভ থেকে সংযত থাকতে হবে। কিন্তু মওদুদী-জামাত ব্যবসার নামে শয়তানী করে চলেছে। এসব প্রতিরোধ করতে হবে সকলে।’
সভাপতির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেছেন,‘মানুষকে আল্লাহ সৃষ্টি করেছেন, তাদেরকে আল্লাহ শ্রেষ্ঠত্ব দিয়েছেন। প্রতিটি মানুষকে বুঝতে হবে যে সে কতটুকু মানুষের জন্য উপকারে কাজ করেছে, দেশের উন্নয়নের জন্য কাজ করেছে। আকিদা বা বিশ^াসকে মুখে ধারণ করলে হবে না। কাজে রূপান্তর করতে হবে। দেশের উন্নয়নে কাজ করতে হবে সকলে।’
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার মো. বরকতুল্লাহ খান বলেছেন,‘এদেশে জঙ্গিবাদের কোনো স্থান নেই। ইসলামের নামে অপব্যাখ্যা দিয়ে জিহাদ করা সঠিক নয়। দেশ ও জাতির উন্নয়নে জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করতে পুলিশকে সহযোগিতা করতে হবে সকলে।’
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ঢাকা’র ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন, উপ-পরিচালক (সমন্বয় ফোরাম) মুজিবুল্লাহ ফরহাদ, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রশাসন বিভাগের সহকারী পরিচালক মাও. মোস্তাফিজুর রহমান, সিলেট বিভাগীয় পরিচালক ফরিদ আহমদ, সুনামগঞ্জের উপ-পরিচালক মো. আবু সিদ্দিকুর রহমান, সহকারী পরিচালক মঞ্জুরুল আলম মজুমদার, মদনীয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাও. আব্দুল বছির, দ্বীনি সিনিয়র মডেল ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাও. আলী নুর।
এছাড়া বক্তব্য রাখেন মাও. ফখরুল ইসলাম, মাও. ইদ্রিছ আলী, মাও. মাহফুজুর রহমান, মাও. লুৎফুর রহমান।
দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষণ কর্মশালায় উপস্থাপনা করেন মাও. বিলাল উদ্দিন, মাও. আশরাফ উদ্দিন, মাও. জয়নাল আবেদীন।