জেলা প্রশাসনের অগ্রাধিকার ভিত্তিক কর্মপরিকল্পনা বিষয়ক কর্মশালা

স্টাফ রিপোর্টার
৩ বছর মেয়াদী অগ্রাধিকার ভিত্তিক কর্মপরিকল্পনা বিষয়ক কর্মশালায় বক্তারা বলেছেন, মানুষের মৌলিক অধিকার পূরণে, বিশেষ করে গ্রামের মানুষের উন্নয়নের জন্য আগামী ৩ বছর কাজ করবে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসন। এসময় অন্যান্য কাজের পাশাপশি, শিক্ষার্থীদের স্কুলে উপস্থিতি নিশ্চিত করে শিক্ষার হার বাড়ানো, গ্রাম আদালত শক্তিশালী করণ এবং ৮৮ ইউনিয়নে বাল্য বিয়ে প্রতিরোধ করারও চেষ্টা করা হবে। সোমবার দুপুরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ সরকার ও ইউনিসেফ’এর যৌথ কর্মসূচি ‘লোকাল গভর্নেন্স ফর চিলড্রেন (এলজিসি)’এর আওতায় এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন- জেলা স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মোহাম্মদ এমরান হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( শিক্ষা ও আইসিটি) হারুন অর রশীদ, জেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ-পরিচালক মোজাম্মেল হক, ডেপুটি সিভিল সার্জন আবুল কালাম আজাদ, এডিপিও মোহাম্মদ সাজ্জাদ, ডা. মো. আশরাফুল হক, ব্র্যাক’এর জেলা প্রতিনিধি একে আজাদ, জেলা ত্রাণ ও পূনর্বাসন কর্মকর্তা ফরিদুল হক, জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল আমিন সরকার প্রমুখ।
কর্মশালায় জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।