ডানো’র মেয়াদোত্তীর্ণ ৯০০ প্যাকেট দুধ পুড়ালো র‌্যাব, দুই জনের জেল-জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার
সুনামগঞ্জ পৌর শহরে স্কুল শিক্ষার্থীদের কাছে ডানো কোম্পানির মেয়াদোত্তীর্ণ দুধ বিক্রির অভিযোগে এক ব্যক্তিকে ১৫ দিনের জেল, আরেকজনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। একই সঙ্গে পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে ওই কোম্পানির মেয়াদোত্তীর্ণ ৯০০ প্যাকেট দুধ ও ডানো ক্যাপ্টেন চকোলেট মিল্ক পাউডার।
শনিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ পৌর শহরের সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে প্রথমে অভিযান চালায় র‌্যাবের সুনামগঞ্জ কোম্পানির একটি দল। পরে শহরের হকার্স সমবায় মার্কেটে অভিযান চালিয়ে মেসার্স অনিল স্টোরের গুদাম থেকে ডানো’র মেয়াদোর্ত্তীণ প্রায় ৯০০ প্যাকেট দুধ ও চকোলেট মিল্ক পাউডারের প্যাকেট জব্দ করা হয়। এসব পণ্যের মেয়াদ শেষ হয়েছে প্রায় এক বছর আগে। সরকারি জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয় সামনে ওই ব্যক্তিরা দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষার্থীদের কাছে চকোলেট মিল্ক পাউডার বিক্রি করছিলেন। প্রতি গ্লাসের দাম রাখা হতো ১৫টাকা।
পৌর শহরের মুহাম্মদপুর এলাকার বাসিন্দা মারুফ আহমদ জানান, সকালে জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে থাকা ভ্রাম্যমাণ দোকান থেকে তার ছেলের জন্য এক প্যাকেট চকোলেট মিল্ক পাউডার কিনেন তিনি। বাড়িতে নিয়ে দেখেন এসবের মেয়াদ এক বছর আগে শেষ হয়েছে। পরে তিনি আবার স্কুলে এসে বিষয়টি প্রধান শিক্ষককে জানান। এরপর তারা শহরে টহলরত র‌্যাবকে বিষয়টি জানালে র‌্যাব সদস্যরা সেখানে এবং শহরের হকার্স সমবায় মার্কেটের অনিল স্টোরের গুদামে অভিযান চালান।
র‌্যাব জানায়, সরকারি জুবিলী উচচ বিদ্যালয়ের ফটকের সামনে থেকে ডানো কোম্পানির মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য শিক্ষার্থীদের কাছে বিক্রির অভিযোগে সোলেমান মিয়াকে (৩৪) আটক করা হয়। এ সময় তার কাছ থেকে প্রায় ১০০ প্যাকেট মেয়াদোর্ত্তীণ চকোলেট মিল্ক পাউডারের প্যাকেট উদ্ধার করা হয়। সোলেমান মিয়া শহরের হাসননগর এলাকার ইমতিয়াজ মিয়ার ছেলে। এরপর অভিযান চালানো হয় মেসার্স অনিল স্টোরের গুদামে। সেখান থেকে ৮০০ প্যাকেট ডানো’র মেয়াদোর্ত্তীণ দুধ ও চকোলেট মিল্ক পাউডার উদ্ধার করা হয়। এ সময় আটক করা হয় ওই প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপক প্রবীর দাসকে (২৮)। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আল আমিন সরকার সোলেমান মিয়াকে ১৫ দিন বিনাশ্রম কারাদ- এবং প্রবীর দাসকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এরপর জব্দ করা মেয়াদোর্ত্তীণ পণ্য আগুনে পুড়িয়ে ধ্বংস করা হয়।
র‌্যাবের সুনামগঞ্জ (সিপিসি-৩) কোম্পানির কমা-ার ফয়সল আহমদ বলেন, আমাদের কাছে খবর আসার পরই আমরা ওই জায়গায় অভিযান চালিয়ে এক ব্যক্তিকে আটক করি। পরে শহরের আরেক স্থানে অভিযান চালানো হয়। দুই স্থান থেকেই ডানো কোম্পানির মেয়াদোত্তীর্ণ পণ্য জব্দ করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত দুই ব্যক্তিকে জেল-জরিমানা করেন।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন র‌্যাবের ডিএডি নাসিম আহমদ, জেলা মার্কেটিং অফিসার মো. আব্দুল খালেক প্রমুখ।