তাবলিগের দুই পক্ষই সুন্দরভাবে ইজতেমা পালনের কথা দিয়েছে: আইজিপি

সু.খবর ডেস্ক
তাবলিগ জামাতের দুটি পক্ষই সুন্দর ও সুশৃঙ্খলভাবে বিশ্ব ইজতেমা পালনের কথা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) আবদুল্লাহ আল মামুন।
বুধবার সকালে গাজীপুরের টঙ্গীর ইজতেমা মাঠ পরিদর্শন করতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।
বিরোধের কারণে তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষের জন্য এবারও বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে আলাদাভাবে। এক পক্ষের মাওলানা জুবায়েরের অনুসারীরা ইজতেমায় অংশ নেবেন ১৩, ১৪ ও ১৫ জানুয়ারি। অন্য পক্ষের মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীদের ইজতেমা শুরু হবে ২০ জানুয়ারি।
আইজিপি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘দুই পক্ষের মধ্যে মতবিরোধ আছে, এটা সত্য। এ জন্য আমরা দুই পক্ষের সঙ্গেই বসেছি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে সভা হয়েছে। গতকালও (মঙ্গলবার) আমরা বসেছি। তাদের নিজেদের মতবিরোধ নিরসনের আহ্বান জানিয়েছি। দুই পক্ষই আমাদের কথা দিয়েছে, ইজতেমা সুন্দরভাবে পালন করবে। কোনো বিশৃঙ্খলা হবে না। আমরা এ ব্যাপারে তাদের ওপর আস্থা রাখতে চাই।’
দুই দিন ধরে ইজতেমা মাঠে জড়ো হচ্ছেন মাওলানা জুবায়েরের অনুসারীরা। এর মধ্যে বুধবার বেলা ১১টার দিকে ইজতেমা মাঠের বিদেশি কামরার সামনে দিয়ে মাঠে প্রবেশ করেন আইজিপি আবদুল্লাহ আল মামুন।
এ সময় তাঁর সঙ্গে ছিলেন পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (অপারেশন) আতিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (স্পেশাল ব্রাঞ্চ) মো. মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (ট্যুরিস্ট পুলিশ) হাবিবুর রহমান ও গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার মোল্যা নজরুল ইসলাম।

প্রথমে তাঁরা মাঠ ও কয়েকটি কামরা পরিদর্শন করেন। পরে সংবাদ সম্মেলন করে ইজতেমার বিষয়ে প্রস্তুতির কথা জানান।
আইনশৃঙ্খলার বিষয়ে আইজিপি আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘বৈশ্বিক মহামারির কারণে দুই বছর ইজতেমা আয়োজন করা হয়নি। এবার আবার আলাদাভাবে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তাই আমরা আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা জোরদার করেছি। ইজতেমার কয়েক দিন র্যাব, পুলিশ, আনসারসহ বিভিন্ন বিভাগ ও বাহিনীর উল্লেখযোগ্যসংখ্যক সদস্য সার্বক্ষণিক নজর রাখবেন। গাজীপুর বা ঢাকা মহানগর পুলিশের বাইরেও সারা দেশ থেকে আনা পুলিশ সদস্যরা বিভিন্ন স্তরে মোতায়ন থাকবেন।’
সূত্র : প্রথমআলো