তাহিরপুরে পিআইও’র বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ

আমিনুল ইসলাম, তাহিরপুর
তাহিরপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. জি.এম ওয়ালিউল্লাহর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগ আনলেন দুই ইউপি চেয়ারম্যান। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ খালেদুর রহমানের সভাপতিত্বে তাঁর অফিসকক্ষে ৪০ দিনের কর্মসূচির অগ্রগতি বিষয়ক সভায় প্রকাশ্যে উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. জি.এম ওয়ালিউল্লাহর বিরুদ্ধে তাহিরপুর সদর ইউপি চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন ও দক্ষিণ বড়দল ইউপি চেয়ারম্যান সবুজ আলম অভিযোগ উপস্থাপন করেন। দুই চেয়ারম্যানের অভিযোগের ভাষ্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেকর্ডভূক্ত করেছেন।
অভিযোগে সদর ইউপি চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন বলেন,‘উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন তার নিকট থেকে ৪০ দিন কর্মসূচির বিল দেয়ার নামে নগদ ৫০ হাজার টাকা ঘুষ নেন।’
দক্ষিণ বড়দল ইউপি চেয়ারম্যান সবুজ আলম লিখিত বক্তব্যে বলেন,‘পিআইও সাহেবকে ২ লক্ষ টাকা ঘুষ দিয়ে ৪০ দিনের কর্মসূচির বিল উত্তোলন করেছি।’
চেয়ারম্যান বোরহান উদ্দিন ও সবুজ আলম আরো বলেন,‘ প্রকল্পের শতভাগ কাজ করার পরও পিআইওর দাবিকৃত ঘুষের টাকা পরিশোধ করার পরও ৫০ ভাগ কাজের বিল পরিশোধ করেছেন তিনি। বাকী বিল পরিশোধ করার শর্তে পিআইও আরো ঘুষের টাকার দাবি করছেন। উনার দাবিকৃত টাকা না দেয়ায় বিল ছাড় করছেন না।’
সভায় উপস্থিত  আরো ৫ ইউপি চেয়ারম্যান বলেন,‘দুর্নীতিবাজ পিআইও’র অধীনে কাজ করা যাবে না। তাকে অন্যত্র বদলি করা হোক।
উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও শ্রীপুর উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেন খান বলেন,‘প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো.জিএম ওয়ালিউল্লাহ সরকারের উন্নয়ন কর্মকা-কে বাধাগ্রস্ত করার জন্য বেপরোয়া ঘুষ দুর্নীতি ও অনিয়ম করছে।
তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ খালেদুর রহমান বলেন,‘পিআইও জি.এম ওয়ালিউল্লাহর বিরুদ্ধে চেয়ারম্যানদের দেয়া বক্তব্য আমি শুনেছি ও রেকর্ডবন্দি করেছি। তার বিরুদ্ধে ত্রাণ ও দুর্যোগ মন্ত্রণালয়ে একটি প্রতিবেদন পাঠাব।’