তাহিরপুরে রাস্তা মেরামত করলো কলেজ ছাত্ররা

আমিনুল ইসলাম, তাহিরপুর
তাহিরপুর বাজার থেকে তাহিরপুর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ে যাওয়ার রাস্তাটি যেন মরণ ফাঁদ। এ রাস্তা থেকে নীচে পড়ে গত ৫ বছরে কমপক্ষে ৫ জন গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে তাহিরপুর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোশারফ হোসেন রাস্তার উপর থেকে নীচে পড়ে ডান পা ভেঙে প্রায় এক বছর ডাক্তারের চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছুটিতে ছিলেন। সম্প্রতি জেএসসি পরীক্ষায় যাওয়ার পথে এই রাস্তায় একজন ছাত্রী আহত হয়।
এসব দুর্ঘটনা নিরসনে তাহিরপুর উপজেলা সদরের ভাটি তাহিরপুর গ্রামের কলেজ ছাত্র ধীমান চন্দ, মনিরাজ ইসলাম, মবিন নূর, রোমান আহমেদ তোষা মিয়া, আহমেদুল হাসান ও মাহফুজুল হক সৌরভ উদ্যোগ নিয়ে বৃহস্পতিবার দিনব্যাপী রাস্তার গর্তগুলো স্বেচ্ছাশ্রমে মাটি ভরাট করে। স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তাটি মাটি ভরাটের ফলে এখন মটর সাইকেল ও রিক্সা সহজে ও নিরাপদে চলাচল করছে।
এ রাস্তায় যাতায়াতকারী গোবিন্দশ্রী গ্রামের তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা সেলিম আখঞ্জি বলেন, কলেজ ছাত্ররা স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা মেরামতের ফলে এখন এ রাস্তা দিয়ে পথচারীরা নিরাপদে চলাচল করতে পারছে।
কলেজ ছাত্র আহমদুল হাসান জানায়, সম্প্রতি জেএসসি পরীক্ষায় যাতায়াতকারী এক ছাত্রী রাস্তার গর্তে পড়ে আহত হওয়ায় তারা ছয় বন্ধু মিলে স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা মেরামতের উদ্যোগ নেয়।
তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশলী আলমগীর হোসেন বলেন, তাহিরপুর বাজার, তাহিরপুর সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় হয়ে গোবিন্দশ্রী পর্যন্ত যাওয়ার রাস্তাটি মেরামতের জন্য ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়েছে। নির্মাণ কাজের মালামাল প্রকল্প সাইটে ঠিকাদার নিয়ে আসছে। আগামী এক মাসের মধ্যে নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে।
সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন,‘তাহিরপুর বাজার হইতে গোবিন্দশ্রী গ্রাম পর্যন্ত যাওয়ার রাস্তাটি মেরামতের জন্য ৩৮ লক্ষ টাকা টেন্ডার হয়েছে। দ্রুত মেরামত কাজ সম্পন্ন হবে।’