তাহিরপুরে ১২ হাজার ৪শ টাকা জরিমানা

স্টাফ রিপোর্টার,তাহিরপুর
তাহিরপুরে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে শুরু হয়েছে কঠোর লকডাউন। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়ায় ১৩ টি মামলায় ১২ হাজার ৪শ টাকা জড়িমানা করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রায়হান কবীর। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে সরকারী আধা সরকারি এনজিওসহ সকল অফিস বন্ধ রয়েছে।উপজেলা সদরের মোরে মোরে পুলিশ দাঁড়িয়ে আছে।প্রয়োজন ছাড়া রাস্তায় কাউকে থাকতে দিচ্ছেন না তারা।সড়কে থামিয়ে কোথায় যাচ্ছেন,কেন যাচ্ছেন-এমন সব প্রশ্নের পর যৌক্তিক জবাব দিতে পারলেই সাধারন মানুষকে গন্থব্যে যেতে দেয়া হচ্ছে।না হয় ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে সবাইকে।রাস্তায় কোন প্রকার যানবাহন ছিল না। পায়ে হেটে গন্থব্যে যাচ্ছেন। তাহিরপুর উপজেলা সদর বাজার ও বাদাঘাট বাজারের মাছ বাজার,কাচামালের বাজার,ও ওষুদের দোকান ব্যতীত সকল দোকানপাঠ বন্ধ ছিল।অভিযানের সময় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সাথে ছিলেন,থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুল লতিফ তরফদার,তাহিরপুর বাজার বনিক সমিতির সভাপতি আবিকুল ইসলাম,বাদাঘাট বনিক সমিতির সভাপতি সেলিম হায়দার প্রমূখ।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রায়হান কবীর বলেন,বৃহস্পতিবার বিকাল পর্যন্ত ১৩টি মামলায় ১২হাজার ৪শ টাকা জড়িমানা করা হয়েছে।ভ্রাম্যমান আদালত চলমান রয়েছে।আগামী ৭ জুলাই মধ্য রাত পর্যন্ত এ বিধি নিষেধ মেনে চলতে হবে।