তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়ক- নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তা নির্মাণ, কাজে ধীরগতি

স্টাফ রিপোর্টার, তাহিরপুর
তাহিরপুর উপজেলার জনগুরুত্বপূর্ণ রাস্তা তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কের বেহাল অবস্থার কারণে জনচলাচলে ব্যাপক দুর্ভোগ দেখা দিয়েছে। উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ৪টি ইউনিয়নের সংযোগস্থল হচ্ছে এ রাস্তাটি। সুনামগঞ্জ জেলার হাওরাঞ্চলের সবচেয়ে বড় বাজার হচ্ছে উপজেলার বাদাঘাট বাজার। রাস্তা পুরোপুরি জনচলাচল ও যানচলাচলের অনুপোযোগী হওয়ার কারণে মালামাল পরিবহন করতে ব্যবসায়ীদের ব্যপক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। রাস্তাটি প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্পে তালিকাভূক্ত থাকায় তিন গ্রুপে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে টেন্ডার দেয়া হয়। এর মধ্যে বাদাঘাট হতে পাতারগাঁও পর্যন্ত রাস্তার এক কোটি ৩৮ লক্ষ টাকার কাজ পায় আমিনুল হক এন্ড কোং। পাতারগাঁও হতে সূর্য্যরেগাঁও পর্যন্ত দুই গ্রুপের এক কোটি ৮৬ লক্ষ ৯৩ হাজার টাকার কাজ পায় ঠিকাদার অমল চৌধুরী। স্থানীয়দের অভিযোগ কাজের সময়সীমা পেরিয়ে গেলেও ঠিকারদার ধীরগতিতে কাজ করছে। অপরদিকে নিম্নমানের বালি পাথর ও বিটুমিন দিয়ে তারা কাজ করছে। যে কাজটুকু গালা দিয়ে করা হয়েছে তা আবার উঠে যাচ্ছে।
তাহিরপুর উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক হাফিজ উদ্দিন বলেন, ঠিকাদারের অবহেলার কারণে এখন পর্যন্ত ৩০ ভাগ কাজ সম্পন্ন হয়নি। ফলে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে।
বাদাঘাট-তাহিরপুর সড়কের বাদাঘাট পাতারগাঁও অংশের আমিনুল হক এন্ড কোং এর পক্ষে পরিচালক প্রফুল্ল পাল বলেন, আমরা কাজ সঠিকভাবে করছি, কাজে কোন রকম অনিয়ম নেই।
কাজের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মাজেদুল হক বলেন, নির্মাণ কাজের বিষয়ে স্থানীয় সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন কিছুদিন আগে অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন। বর্তমানে কাজটি ওঠানোর বিষয়ে আমরা সার্বক্ষণিক তদারকি কাজে নিয়োজিত রয়েছি।
বাদাঘাট-তাহিরপুর সড়কের সূর্যেরগাঁও টাকাটুকিয়া অংশের ঠিকাদার হাবুল চৌধুরীর পক্ষে নিয়োজিত পরিচালক হাফিজ মিয়া বলেন, আগামী এক মাসের মধ্যে আমরা কাজটি সমাপ্ত করতে পারবো।
সংশ্লিষ্ট কাজের উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফজলুল হক বলেন, কাজ যথাসময়ে শেষ করার জন্য আমরা সার্বক্ষণিক তদারকীতে নিয়োজিত আছি।
তাহিরপুর উপজেলা প্রকৌশলী আলমগীর হোসেন বলেন, কাজের ত্রুটির বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে বলা হয়েছে। দ্রুত কাজ উঠানোর বিষয়ে ঠিকাদারগণ আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন।
সুনামগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন বলেন, তাহিরপুর-বাদাঘাট সড়কটি হাওরাঞ্চলের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সড়ক। সড়কটি যথাসময়ে সম্পন্ন করতে না পারায় সুনামগঞ্জ’র এলজিইডি নির্বাহী প্রকৌশলীকে ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে নির্দেশ দিয়েছি।