দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াকে কঠোর সতর্কবার্তা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

সু.খবর ডেস্ক
বাংলাদেশসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে খুব দ্রুত করোনাভাইরাস ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পারতে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তাই এই ভাইরাস ঠেকাতে দেশগুলোকে এখনই কঠোর পদক্ষেপ নিতে বলেছে সংস্থাটি।
মঙ্গলবার এই সতর্কবার্তা দিয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানায়, সাম্প্রতিক সময়ে এই অঞ্চলে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। প্রতিরোধ হিসেবে কয়েকটি দেশ তাদের সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে এবং স্কুল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ও বন্ধ ঘোষণা করেছে।
সংস্থাটি আশঙ্কা করছে যে, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোতে চিকিৎসা ব্যবস্থা দুর্বল হওয়ার কারণে এই অঞ্চলে ব্যাপকভাবে করোনা ছড়িয়ে পড়লে তা এখানকার অনেক দেশই নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে না।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আঞ্চলিক প্রধান পুনম ক্ষেত্রপাল সিং বলেন, ভাইরাসটিকে আরও বেশি লোকের সংক্রমণ থেকে রোধ করতে দেশগুলোকে এখনই সব পদক্ষেপ নিতে হবে। করোনা ঠেকাতে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোকে জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ বাড়ানো দরকার।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তালিকাভুক্ত দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার ১১টি দেশেই ইতোমধ্যে করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে থাইল্যান্ডে ১৭৭ জন, ইন্দোনেশিয়ায় ১৩৪ জন, ভারতে ১২৫ জন, শ্রীলংকায় ১৯ জন, মালদ্বীপে ১৩ জন, বাংলাদেশে ১০ জন, নেপালে ১ জন এবং ভুটানে ১ জন।
সূত্র : সমকাল