দল অংশ না নিলেও ভোটে দুই বিএনপি নেতা

জগন্নাথপুর অফিস
জগন্নাথপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির দুই নেতা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ভোট যুদ্ধে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। দলীয়ভাবে বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত থাকলেও বিএনপির দুই নেতা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় নেতাকর্মীরা বিভ্রান্ত হয়ে পড়েছেন।
বিএনপি নেতাকর্মীরা জানান, ২০১৭ সালের সর্বশেষ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হিসেবে বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি আতাউর রহমান ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। বিএনপি দলীয়ভাবে নির্বাচনে অংশ না নিলেও তিনি এবারও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। এছাড়াও ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক যুক্তরাজ্য বিএনপির সক্রিয় নেতা আব্দুল মতিন লাকি মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। বিএনপির দুই নেতা উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় নেতাকর্মীরা বিভ্রান্ত হয়ে পড়েছেন। দলের পদ পদবিধারী নেতাকর্মীরা প্রকাশ্য তাদের পাশে এখনো মাঠে না নামলেও কর্মী সমর্থকরা মাঠে কাজ করছেন।
ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী আব্দুল মতিন লাকি বলেন, আমি দলের গুরুত্বপূর্ণ কোন পদে নেই। দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করায় এলাকাবাসীর সমর্থন নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি।
চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী বর্তমান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা বিএনপির সাবেক সহ সভাপতি আতাউর রহমান বলেন, দলের কোন পদ পদবিতে এখন আমি নেই। বর্তমান চেয়ারম্যান হিসেবে গণমানুষের দাবির প্রেক্ষিতে আমি আবারও প্রার্থী হয়েছি।
জগন্নাথপুর উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক আব্দুল হাশিম ডালিম বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হলেও বিএনপির দুই নেতা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করায় নেতাকর্মীরা বিভ্রান্তিতে আছেন। দলীয়ভাবে এখন পর্যন্ত আমাদের কোন নির্দেশনা নেই। তাই আমাদের কোন কর্মী সমর্থক মাঠে নেই।
জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সভাপতি আবু হোরায়রা ছাদ বলেন, দলীয়ভাবে আমরা নির্বাচনে নেই। তাই উপজেলা পরিষদের নির্বাচন নিয়ে আমাদের কোন আগ্রহ নেই। দলের কোন দায়িত্বশীল নেতা নির্বাচনী প্রচারের মাঠে নেই। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে কেউ নির্বাচনে করলে আমাদের কোন দায় নেই।