দিরাইয়ে তিন দিন ধরে নিখোঁজ কিশোরী

দিরাই সংবাদদাতা
দিরাইয়ে নিখোঁজের তিন দিন পরেও সন্ধান মিলেনি এক কিশোরীর। এ ঘটনায় দিরাই থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন নিখোঁজ কিশোরীর পিতা। সোমবার সকালে দিরাই থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন তিনি, ডায়রী নং ৪৩৬।
জানা যায়, নিখোঁজ কিশোরী উপজেলার চরনারচর ইউনিয়নের লৌলারচর গ্রামের করুনা তালুকদারের মেয়ে হেনা তালুকদার (১২)। শুক্রবার ৭ অক্টোবর বিকাল ৩টার দিকে তাদের বাড়ির দক্ষিণে থাকা সড়কে হাঁটাচলা করার জন্য বের হয় হেনা। পরবর্তীতে অনেক সময় ধরে তার কোন সন্ধান না পেয়ে তাকে খুঁজতে বের হয় হেনার পরিবারের লোকজন ও আত্মীয়স্বজনরা। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করে তার সন্ধান না পেয়ে সোমবার সকালে থানায় সাধারণ ডায়েরী করা হয়।
কিশোরীর পিতা করুনা তালুকদার জানান, মেয়ে নিখোঁজের পর রবিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে অজ্ঞাত নামা এক ব্যক্তি +২৭৬২৫৮৬১৪১২ এই নাম্বার থেকে আমার মোবাইলে ফোন করে বলে ভৈরব শহরে আমার মেয়ে আছে। আজকের মধ্যে আসলে তোমার মেয়েকে পাবে। কিছুক্ষণ পর ০১৭৫৪২২৫৮৪৫ এই নাম্বার হতে পুনরায় আরেকটি ফোন আসে এবং বলে আমি দিরাই থানা থেকে বলছি ১০০০/— টাকা বিকাশে দিলে দিরাই থানায় একটি জিডি করা হবে। আমাকে থানায় যেতে হবে না। পরবর্তীতে আমি আর তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারিনি।
দিরাই থানার (ওসি) তদন্ত মো. আকরাম আলী জানান, কিশোরী নিখোঁজের সাধারণ ডায়েরী করা হয়েছে। ঘটনার তদন্তসহ তাকে উদ্ধারে কাজ করছে পুলিশ।