দিরাইয়ে নিখোঁজের দুইদিন পর ঘরে মিললো শিশুর ঝুলন্ত লাশ

দিরাই প্রতিনিধি
দিরাইয়ে নিখোঁজের দুই দিন পর বসত ঘরের সাথে থাকা বারান্দাঘর থেকে গলায় ফাঁস লাগানো ঝুলন্ত অবস্থায় সোহাগ মিয়া (১০) নামক এক শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার দুপুর ২টায় পৌর সদরের ৬নং ওয়ার্ডের মজলিশপুর এলাকার আব্দুল হাসিম মিয়ার ঘর থেকে এ লাশ উদ্ধার করে দিরাই থানা পুলিশ। সে শাল্লা উপজেলার শশারকান্দা গ্রামের মৃত খোকন মিয়ার পুত্র। নিহত সোহাগের মা রুকেনা বেগম দু-পুত্র সন্তান নিয়ে বাবা আব্দুল হাসিমের বাড়ীতে বসবাস করতেন।
জানা যায়, গত শুক্রবার বেলা ৩টার দিকে মাঠে খেলায় যাওয়ার কথা বলে ঘর থেকে বের হয়ে রাতে বাড়ি ফিরেনি সোহাগ। অনেক খোঁজাখুজির পর পরদিন শনিবার ছেলে হারানোর সংবাদ জানিয়ে দিরাই থানায় সাধারণ ডায়রী করেন রুকেনা বেগম। রবিবার দুপুর ১টার দিকে ঘরের সাথে থাকা খড়কুটো রাখার বারান্দাঘর থেকে দুর্গন্ধ বের হলে দরজা খুলে দেখা যায় গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় শিশু সোহাগের লাশ ঝুলছে। খবর পেয়ে দিরাই থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।
দিরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেএম নজরুল ইসলাম জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট আসার পর মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।