দিরাইয়ে সরকারি খালে প্রভাবশালীর দেয়াল নির্মাণ

দিরাই প্রতিনিধি
দিরাই উপজেলার জগদল ইউনিয়নের বাসুরী গ্রামে সরকারি খাস খতিয়ানের খালে গ্রামের প্রভাবশালী কর্তৃক দেয়াল নির্মাণ ও দেয়াল অপসারণে স্থানীয় প্রশাসনের নির্দেশ উপেক্ষা করায় এলাকার সাধারণ মানুষের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করছে। জানা যায়, প্রায় দেড় বছর পূর্বে বাসুরী গ্রামের প্রভাবশালী হাজী শমসু মিয়া সরকারি ভূমি আত্মসাতের উদ্দেশ্যে এলাকাবাসীর নিষেধ উপেক্ষা করে খালের ভূমিতে দেয়াল নির্মাণ করেন। এরফলে দিরাই ও পাশর্^বর্তী জগন্নাথপুর উপজেলার প্রায় ১০/১২টি গ্রামের লোকজন সহ জগদল আল ফারুক উচ্চ বিদ্যালয় ও জগদল মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বর্ষা মৌসুমে নৌপথে যাতায়াতে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়। এরই প্রেক্ষিতে তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলতাফ হোসেনের নিকট শতাধিক গ্রামবাসী অভিযোগ দাখিল করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সার্ভেয়ার সরেজমিন তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয় হাজী শমসু মিয়া সরকারি খালের ৬২ ফুট দৈর্ঘ্য ও ১২ ফুট প্রস্থ পরিমাণ ভূমিতে অবৈধভাবে দেয়াল নির্মাণ করেছেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার খালের ভূমিতে নির্মিত দেয়াল অপসারণের জন্য নিদের্শ দিলেও নির্দেশ উপেক্ষা করেন শমসু মিয়া। পরবর্তীতে উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী অফিসার শাহিদুল ইসলাম সরেজমিন বাসুরী খাল পরিদর্শন করে দেয়াল অপসারণের জন্য শমসু মিয়াকে নির্দেশ দেন। এতেও টনক নড়েনি শমসু মিয়ার। বাসুরী গ্রামের আবুল মুহিত সেলিম, সমরুল হক, জমিরুল হোসেন, হারুন রশীদ, বদিউর রহমান, বশির উদ্দিন সহ অনেক গ্রামবাসী বলেন, আমরা গ্রামের মুরুব্বি, যুবকরা মিলে এলাকার মানুষের কাছে গিয়েছি। বাসুরী, রাজনাও, সিংহনাথ, জগদল, নারাইনকুড়ি, রায়বাঙ্গালি, দাস নোয়াগাঁও, কদমতলী ও জগদল বাজার কমিটির লোকজনের কাছ থেকে স্বাক্ষর নিয়েছি। এই অবৈধ দেয়াল অপসারণের পক্ষে সকলেই মত প্রকাশ করেছেন। স্থানীয় প্রশাসন বারবার অবৈধ দেয়াল অপসারণের জন্য নির্দেশ দিলেও দেয়াল অপসারণে কোন উদ্যোগই নিচ্ছেন না শমসু মিয়া। খালে নির্মিত দেয়ালের জন্য এলাকাবাসীর ভোগান্তি হলেও যেন দেখার কেউ নেই। এ বিষয়ে প্রশাসনের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তাঁরা। এবিষয়ে জানতে চাইলে নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফুল ইসলাম বলেন, সরকারী খালের ভূমি দখল শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এছাড়াও সরকারী খাল, নদী অবৈধ দখলমুক্ত করার জন্যে নদী রক্ষা কমিশনের বিশেষ নির্দেশনা রয়েছে। আমি এ ব্যাপারটি প্রথম শুনলাম। অবশ্যই অবৈধ দখলদারকে উচ্ছেদ করা হবে।