দুর্গম এলাকার সরকারি কর্মচারীদের জন্য বিশেষ ভাতা নির্ধারণ

সু.খবর ডেস্ক
হাওর, দ্বীপ বা চর উপজেলা হিসেবে ঘোষিত দুর্গম অঞ্চলে কর্মরত সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার এবং সর্বনিম্ন এক হাজার ৬৫০ টাকা বিশেষ ভাতা নির্ধারণ করেছে সরকার।
২০১৫ সালের জাতীয় বেতন কাঠামো অনুযায়ী এসব ভাতা নির্ধারণ করে রোববার আদেশ জারি করেছে অর্থ বিভাগ। গত ৫ মে থেকে এসব ভাতা কার্যকর ধরা হয়েছে।
দুর্গম বিবেচনায় কিশোরগঞ্জের ইটনা ও মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম, চট্টগ্রামের সন্দ্বীপ, কক্সবাজারের কুতুবদিয়া, নোয়াখালীর হাতিয়া, সিরাজগঞ্জের চৌহালী, কুড়িগ্রামের রৌমারী ও চর রাজিবপুর, পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী এবং ভোলার মনপুরাকে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি হাওর, দ্বীপ বা চর উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়।
এছাড়া সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা, শাল্লা ও দোয়ারাবাজার, হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ এবং নেত্রকোনার খালিয়াজুরী উপজেলাকে হাওর, দ্বীপ বা চর উপজেলার হিসেবে ঘোষণা করে সরকার।
২০ তম বেতন গ্রেড ১৬৫০ টাকা, ১৯ তম বেতন গ্রেড ১৭০০ টাকা, ১৮ তম বেতন গ্রেড ১৭৬০ টাকা, ১৭ তম বেতন গ্রেড ১৮০০ টাকা, ১৬ তম বেতন গ্রেড ১৮৬০, ১৫ তম বেতন গ্রেড ১৯৪০ টাকা, ১৪ তম বেতন গ্রেড ২০৪০ টাকা, ১৩ তম বেতন গ্রেড ২২০০, ১২ তম বেতন গ্রেড ২২৬০, ১১ তম বেতন গ্রেড ২৫০০, ১০ তম বেতন গ্রেড ৩২০০ টাকা, ৯ তম বেতন গ্রেড ৪৪০০ টাকা, ৮ তম বেতন গ্রেড ৪৬০০ টাকা, ৭ থেকে তদূর্ধ্ব ৫০০০ টাকা।
১৬ উপজেলায় কর্মরত সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য বিশেষ ভাতা চালুর জন্য গত ৭ মার্চ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় এবং অর্থ বিভাগের সচিবকে চিঠি পাঠায় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।
বর্তমান নিয়মে পার্বত্য জেলা সদর ও সদর উপজেলায় নিযুক্ত সকল সরকারি কর্মচারী মূল বেতনের ২০ শতাংশ হারে সর্বোচ্চ তিন হাজার টাকা এবং অন্যান্য উপজেলায় মূল বেতনের ২০ শতাংশ হারে সর্বোচ্চ পাঁচ হাজার টাকা পাহাড়ি ভাতা দেওয়া হয়।
সূত্র : বিডিনিউজ২৪.কম